পাকিস্তানে করোনায় মৃত্যু হাজার ছাড়াল

পাকিস্তানে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। এ পর্যন্ত দেশটির করোনায় প্রাণহানির সংখ্যা এক হাজার ছাড়িয়েছে।

গত ১৮ মার্চ পাকিস্তানে প্রথমবারের মতো একজন করোনা রোগীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। দুই মাস যেতেই এ সংখ্যা হাজার ছাড়াল।

পাকিস্তানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে দেশটির গণমাধ্যম দ্য ন্যাশন জানিয়েছে, করোনায় আক্রান্ত হয়ে পাকিস্তানে এখন পর্যন্ত ১ হাজার ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত একদিনে নতুন করে রেকর্ডসংখ্যক ২ হাজার ১৯৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

দেশটিতে মোট আক্রান্তের দিক দিয়ে শীর্ষে রয়েছে সিন্ধুপ্রদেশ। সেখানে করোনায় ১৮ হাজার ৯৬৪ জন আক্রান্ত হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা পাঞ্জাবে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৭ হাজার ৩৮২ জন।

এ ছাড়া খাইবারপাখতুনে ৬ হাজার ৮১৫, বেলুচিস্তানে ২ হাজার ৯৬৮ এবং ইসলামাবাদে এক হাজার ২৩৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।
গিলগিট-বালতিস্তানে ৫৭৯ জন এবং পাকিস্তাননিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে ১৪৮ জন করোনা রোগী পাওয়া গেছে।

উল্লেখ্য, দেশটিতে প্রথম মৃত্যুর ঘটনার পর পরই দেশজুড়ে লকডাউন জারি করে সরকার। দোকানপাট, ব্যবসাবাণিজ্য বন্ধ করে দেয়া হয়। স্কুল-কলেজ ছাড়াও মসজিদে নামাজ পড়াকে সাময়িক বন্ধ রাখা হয়।

তবে চলতি মাসের শুরুতেই কড়াকড়ি কিছুটা শিথিল করা হয়। বেশ কিছু দোকানপাট এবং ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান পুনরায় চালু হয়েছে। আগামী ১৫ জুলাইয়ের পর পরিস্থিতি বিবেচনায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

এদিকে আন্তর্জাতিক ওয়ার্ল্ডওমিটারসে দেয়া সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, পাকিস্তানে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছে ৩২ জন। দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪৮ হাজার ৯১ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছে ১৪ হাজার ১৫৫ জন। হাসপাতালে ও হোম কোয়ারেন্টিনে চিকিৎসাধীন ৩২ হাজার ৯১৯ জন। এদের মধ্যে ১১১ জনের অবস্থা এখনও আশঙ্কাজনক।

এ পর্যন্ত ৪ লাখ ২৯ হাজার ৬০ জনের করোনা টেস্টে এসব তথ্য বেরিয়ে এসেছে।

You Might Also Like