হোম » ‘পাকিস্তানের গুলিতে ৫০ আফগান সেনা নিহত’

‘পাকিস্তানের গুলিতে ৫০ আফগান সেনা নিহত’

ঢাকা অফিস- Monday, May 8th, 2017

পাকিস্তানের এক ঊর্ধ্বতন সেনা কর্মকর্তা দাবি করেছেন, বেলুচিস্তানের চামান এলাকায় গত সপ্তাহে পাকিস্তানি সেনাদের গুলিতে আফগানিস্তানের ৫০ সেনা নিহত ও ১০০ সেনা আহত হয়েছেন।

বেলুচিস্তান ফ্রান্টিয়ার কোরের (এফসি) ইন্সপেক্টর জেনারেল মেজর জেনারেল নাদিম আঞ্জুম এ দাবি করেন। তিনি জানান, বিনা উসকানিতে আফগান সেনারা গুলি চালানো শুরু করলে এর জবাব দেয় পাকিস্তানি সেনারা। এ সময় ওই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

ডন অনলাইনের এক খবরে রোববার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

নাদিম আঞ্জুম বলেন, যাই হোক, ‘তাদের এই প্রাণহানির ঘটনায় আমরা খুশি নই, কারণ তারা আমাদের মুসলিম ভাই।’

গত সপ্তাহে চামানে আন্তঃসীমান্ত হামলার বিষয়ে গণমাধ্যমকে জানাতে গিয়ে এ কথা বলেন মেজর জেনারেল নাদিম আঞ্জুম। তিনি আরো জানান, পাকিস্তানি সেনাদের ওপর আফগান সেনাদের অতর্কিত হামলায় ১২ ব্যক্তি নিহত হয়। ওইদিন শুমারির কাজে নিয়োজিত একটি টিমকে নিরাপত্তা দিচ্ছিল পাকিস্তানি সেনারা।

চামানে হামলার পর ওই অঞ্চলের কিল্লি লুকমান, কিল্লি জাহাঙ্গীর, বাদশা আদ্দা কাহোল এলাকা থেকে লোকজন সরিয়ে নেওয়া হয়। বেলুচিস্তানের প্রাদেশিক রাজধানী কোয়েটাসহ অন্যান অঞ্চলে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়।

মেজর জেনারেল নাদিম আঞ্জুমের দেওয়া তথ্যমতে, পাকিস্তানি বাহিনীর পাল্টা হামলায় সীমান্তের চার-পাঁচটি তল্লাশিচৌকি ধ্বংস হয়। এ ঘটনার পর ৫ মে আফগানিস্তান সীমান্তে যুদ্ধবিরতি পালনের আহ্বান জানায় এবং পাকিস্তান তা গ্রহণ করে।

পাকিস্তানের দাবি, শুমারির বিষয়ে আফগানিস্তানকে অবহিত করার পরও তারা বেসামরিক লোকদের লক্ষ্য করে হামলা চালিয়েছে। এ ছাড়া পাকিস্তানের সাউদার্ন কমান্ডের কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল আমির রিয়াজ এর আগে আফগানিস্তানের ওই হামলাকে ‘লজ্জাজনক’ হিসেবে অভিহিত করেন।

চামানের ওই এলাকা পরিদর্শনের সময় আমির রিয়াজ বলেন, ‘পাকিস্তানের সীমান্তবর্তী গ্রামের বেসামরিক লোকদের লক্ষ্য করে চালানো আফগানিস্তানের হামলা একটি লজ্জাজনক ঘটনা।। তিনি আরো বলেন, ‘এ ধরনের হামলায় আফগানিস্তানের কোনো লাভ হবে না।’