‘পশ্চিমাদের সন্ত্রাস বিরোধী জোট নিছক কপটতা’

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা বলেছেন, সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে কথিত যুদ্ধের নামে পশ্চিমারা যে সামরিক জোট গঠন করেছে তা কপটতা ছাড়া আর কিছু নয়। তারা প্রকৃতপক্ষে সন্ত্রাসবাদ নির্মূল হোক তা চায় না।

মঙ্গলবার বিকেলে ইরান সফররত বসনিয়া-হার্জেগোভিনার প্রেসিডেন্ট বাকির ইজ্জত বেগোভিচের সঙ্গে এক বৈঠকে আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, কোনো কোনো ক্ষেত্রে পশ্চিমা সামরিক জোটকে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে হামলা চালাতে দেখা গেলেও আসলে তারা ইরাক বা সিরিয়া থেকে সন্ত্রাসের মূলোৎপাটন করতে চায় না। ইরানের সর্বোচ্চ নেতা বলেন, পশ্চিমা দেশগুলোর ‘অশুভ ও দুষ্ট’ নীতি প্রতিদিনই মানবতার সামনে নতুন নতুন সংকট তৈরি করছে।

ইউরোপীয় দেশগুলোতে তাকফিরি সন্ত্রাসবাদ ছড়িয়ে পড়ার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, দৃশ্যত এই জঙ্গিবাদের উৎপত্তি আরব অঞ্চলে হয়েছে। কিন্তু এই সন্ত্রাসবাদ উৎপত্তির জন্য মূল দায় আমেরিকা ও কোনো কোনো ইউরোপীয় দেশের সরকারের। শক্তিশালী ইউরোপীয় দেশগুলোতে মুসলিম তরুণদের অপমান-অপদস্থ করার কারণে তারা মধ্যপ্রাচ্যে দায়েশের মতো জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোতে যোগ দিচ্ছে। পরবর্তীতে তারাই আবার ইউরোপে ফিরে গিয়ে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে তাদের অপমানের প্রতিশোধ নেয়ার চেষ্টা করছে।

বসনিয়ার প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠকে দেশটির সঙ্গে রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা জোরদারের আগ্রহ প্রকাশ করে ইরানের সর্বোচ্চ নেতা বলেন, বিশ্বের স্বাধীনচেতা দেশগুলোর উচিত নিজেদের মধ্যে সহযোগিতা জোরদার করা।

সাক্ষাতে প্রেসিডেন্ট বেগোভিচ বলেন, সব মুসলিম দেশের সঙ্গে সম্পর্ক শক্তিশালী করা হচ্ছে তার সরকারের পররাষ্ট্রনীতির মূল বৈশিষ্ট্য। তিনি তাকফিরি সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, বসনিয়ার সব সিনিয়র নেতা তাকফিরি মতবাদের ঘোর বিরোধী। মুসলিম দেশগুলোতে চলমান সংঘাতের ব্যাপারে দুঃখ প্রকাশ করে বসনিয়ার প্রেসিডেন্ট বলেন, এই সংকট থেকে উত্তরণের জন্য মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে ঐক্য প্রতিষ্ঠা জরুরি।#

পার্সটুডে

You Might Also Like