পরমাণু শক্তিধর ভারত ও পাকিস্তানকে ধৈর্য ধরতে হবে: আমেরিকা

চলমান সামরিক ও রাজনৈতিক উত্তেজনার ভেতরে ধৈর্য ধরার জন্য ভারত এবং পাকিস্তানের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে আমেরিকা। একইসঙ্গে ইসলামাবাদ ও নয়াদিল্লিকে মার্কিন সরকার স্মরণ করিয়ে দিয়েছে যে, পরমাণু শক্তিধর কোনো দেশের পক্ষ থেকে আণবিক বোমা ব্যবহারের হুমকি দেয়া উচিত নয়।

পাকিস্তান ও ভারত সরকার যখন তাদের বাগযুদ্ধ তীব্রতর করেছে এবং দু পক্ষই সম্ভাব্য সামরিক সংঘাতে পরস্পরের বিরুদ্ধে পরমাণু বোমা ব্যবহারের হুমকি দিচ্ছে বলে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে খবর বের হয়েছে তখন আমেরিকা এ আহ্বান জানাল।

পাকিস্তানের ইংরেজি দৈনিক ডন মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের একজন মুখপাত্রের কাছে বিষয়টি নিয়ে তাদের মন্তব্য জানতে চাইলে ওই মুখপাত্র বলেন, “পরমাণু শক্তিধর দেশগুলোর দায়িত্ব রয়েছে যে, তাদের পরমাণু অস্ত্র ও ক্ষেপণাস্ত্র-সক্ষমতার বিষয়ে ধৈর্য ধরতে হবে।”

তিনি আরো বলেন, “উরি সেনাঘাঁটিতে হামলা ছিল পরিষ্কারভাবে সন্ত্রাসী হামলা এবং আমরা তার নিন্দা জানাই।” তিনি বলেন, “ভারত ও পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর মধ্যে যোগাযোগ রয়েছে এবং আমরা আশা করি এ যোগাযোগের ধারাবাহিকতায় চলমান উত্তেজনা কমে আসবে।”

আমেরিকা সীমান্ত হামলাকে সন্ত্রাসী তৎপরতা উল্লেখ করে পাকিস্তান-ভিত্তিক লস্করে তাইয়্যেবা এবং জয়শে মুহাম্মাদের মতো সংগঠনগুলোকে নির্মূল করার আহ্বান জানিয়েছে। অবশ্য, পাকিস্তানে এসব সংগঠনকে আগেই নিষিদ্ধ করা হয়েছে। উরি ঘাঁটিতে হামলার নিন্দা করে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা সুসান রাইস ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালকে ফোন করেছেন।

You Might Also Like