নির্বাচনের দাবি মেনে না নেওয়া পর্যন্ত অবরোধ চলবে : রিজভী

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী বলেছেন, নির্দলীয় সরকারের অধীনে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের দাবি মেনে না নেওয়া পর্যন্ত অবরোধ চলবে।

বারিধারার একটি বাসায় বৃহস্পতিবার সকালে কয়েকজন সাংবাদিকের সামনে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা বলেন।

চলমান অবরোধ কর্মসূচির বিষয়ে দলের অবস্থান ব্যাখ্যা করে রিজভী বলেন, ‘সারাদেশে সরকারের দমন-পীড়ন অব্যাহত রয়েছে। গতকালও তিন জন নেতা-কর্মীকে হত্যা করা হয়েছে। তাদের নিষ্ঠুর নির্যাতনে সারাদেশে বিরোধী দলের নেতা-কর্মীরা আহত হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘এ রকম পরিস্থিতিতে আমরা স্পষ্ট ভাষায় বলে দিতে চাই, যতক্ষণ পর্যন্ত আমাদের ওপর দমন পীড়ন বন্ধ করা না হবে, সমাবেশের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করতে না দেয়া হবে ও নির্দলীয় সরকারের অধীনে একটি স্বচ্ছ নির্বাচনের দাবি মেনে না নেয়া হবে ততক্ষণ পর্যন্ত অবরোধ কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।’

রিজভী অভিযোগ করে বলেন, ‘দলের চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে গুলশানের কার্যালয়ে সরকার তার আইন শৃঙ্খলা বাহিনী দিয়ে অবরুদ্ধ করে রেখেছে। তাকে কোথাও যেতে দেয়া হচ্ছে না। বিষাক্ত পিপার স্প্রে দিয়ে তাকে হত্যার অপচেষ্টা করা হয়েছিলো।’

অবরোধ কর্মসূচি গণতান্ত্রিক একটি কর্মসূচি উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘সরকার বিরোধী দলকে শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করতে দিচ্ছে না। দমন নীতির মাধ্যমে তারা আমাদের গণতান্ত্রিক কর্মসূচিতে বাধা দিচ্ছে। হরতাল-অবরোধ এসব গণতান্ত্রিক কর্মসূচি। কর্মসূচি পালনে তারা (সরকার) বাধা দিচ্ছে।’

অবিলম্বে গুলশানের কার্যালয় থেকে পুলিশি অবরোধ তুলে নিয়ে খালেদা জিয়ার স্বাভাবিক চলাচল নিশ্চিত করার দাবি জানান রিজভী।

You Might Also Like