নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীকে পাকিস্তান সফরের আমন্ত্রণ জানালেন ইমরান খান

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন (বাঁয়ে) ও পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ছবি : সংগৃহীত
নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্নকে পাকিস্তান সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। গত ১৫ মার্চ নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে হামলার ঘটনায় নিন্দা জানাতে বৃহস্পতিবার জেসিন্ডাকে টেলিফোন করেন ইমরান খান। ওই হামলায় আটজন পাকিস্তানি নিহত হয়।
এই বর্বর ঘটনা মোকাবিলায় নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী যেভাবে মুসলিমদের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করেছেন তাঁর প্রশংসা করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। ইমরান খান বলেন, বিশ্বব্যাপী ক্রমবর্ধমান ইসলামবিদ্বেষের সময়ে মুসলিমদের প্রতি জেসিন্ডা আরডার্নের আচরণ বিশ্ববাসীকে পথ দেখাবে।
ইমরান খান বলেছেন, তিনি আসলে পাকিস্তানের জনগণের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানাতে প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্নকে ফোন করেছেন। পাকিস্তানও সন্তাসবাদের ভুক্তভোগী, এ কারণে এ পর্যন্ত ৭০ হাজারেরও বেশি নিরপরাধ পাকিস্তানির মৃত্যু হয়েছে।
কথোপকথনের সময় পাকিস্তানি নাগরিক নাইম রাশিদের ত্যাগ ও সাহসের কথা উল্লেখ করেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী। পরে ইমরান খান জেসিন্ডা আরডার্নকে পাকিস্তান সফরের আমন্ত্রণ জানান।
গত ১৫ মার্চ জুমার নামাজের সময় নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে নির্বিচারে গুলি চালায় অস্ট্রেলীয় শ্বেতাঙ্গ জঙ্গি ব্রেন্টন টারান্ট। ওই হামলায় এখন পর্যন্ত ৫০ জন নিহত হয়েছেন। ওই মসজিদে জুমার নামাজ আদায়ের জন্য জড়ো হচ্ছিলেন মুসলমানরা। টেস্ট খেলার জন্য ওই শহরেই ছিলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। ওই মসজিদেই নামাজ আদায়ের জন্য রওনা হন তামিম-মুশফিকরা। তবে পথে এক নারী তাঁদের সাবধান করে দেন। পরে দ্রুত হোটেলে ফিরে যান তাঁরা।
ওই হামলার ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। পরে তা ব্যাপক সমালোচিত হয়। তবে ওই ঘটনার পর থেকেই নিউজিল্যান্ডের মুসলমানদের পাশে দাঁড়ান কিউই প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন। পরের দিনই শোকসন্তপ্ত স্বজনদের সঙ্গে দেখা করেন তিনি।
গত ১৯ মার্চ দেশটির পার্লামেন্টে বক্তব্য দেন জেসিন্ডা। তিনি ওই বক্তব্য শুরু করেন ‘আসসালামু আলাইকুম’ বলে।

You Might Also Like