নিউইয়র্কে বিচারক হলেন কৃষ্ণাঙ্গ মুসলিম নারী

নিউ ইয়র্ক সিটিতে প্রথমবারের মতো একজন কৃষ্ণাঙ্গ মুসলিম নারী একটি ফৌজদারি আদালতের বিচারক হিসেবে শপথ নিয়েছেন।

কিন্তু তিনি বাইবেলের পরিবর্তে পবিত্র কুরআনে হাত রেখে শপথ নিয়েছেন। এ জন্য তীব্র সমালোচনা শুনতে হচ্ছে তাকে।

প্রচলিত রীতি অনুযায়ী যুক্তরাষ্ট্রে বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করার শপথ নেয়ার সময় বাইবেলের ওপর হাত রাখতে হয়। ক্যারোলিন ওয়াকার-ডিয়ালো নামের ওই বিচারক তা করেন নি। তিনি তার পরিবর্তে পবিত্র কুরআনে হাত রেখেছিলেন। এ নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেয়ার পরই তীব্র সমালোচনা হচ্ছে তার।

কেউ কেউ বলছেন, তিনি এর মাধ্যমে সব মার্কিনির মুখে চপেটাঘাত করেছেন। এ খবর দিয়েছে অনলাইন দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন। এতে বলা হয়েছে, পবিত্র কুরআনে হাত রেখে ক্যারোলিন ওয়াকার বলেন, আমি ক্যারোলিন ওয়াকার-ডিয়ালো, শপথ করছি যে, যুক্তরাষ্ট্রের ও নিউ ইয়র্ক রাজ্যের সংবিধান মেনে চলব।

নিউ ইয়র্ক শহরের ফৌজদারি আদালতের বিচারক হিসেবে বিশ্বস্ততার সঙ্গে আমি আমার দায়িত্ব পালন করে যাবো।

ব্রুকলিন বরো হলে ৭ম মিউনিসিপাল ডিস্ট্রিক্টে তিনি এই শপথ নেন। এর ভিডিও কেউ একজন ফেসবুকে পোস্ট করে দেন। তার পর থেকেই তাকে সমালোচনা শুনতে হচ্ছে। সমালোচকরা বলছেন, তিনি বাইবেলের পরিবতর্তে পবিত্র কুরআনে হাত রেখে শপথ নেয়ার মাধ্যমে সব মার্কিনির মুখে চপেটাঘাত করেছেন। একজন তো সামাজিক মিডিয়ায় লিখেই দিয়েছেন হোপ সি গেটস হিট বাই এ ট্রেন অর সামথিং। অর্থাৎ তাকে যেন ট্রেন বা অন্য কোন কিছু আঘাত করে।

You Might Also Like