নারী বিদ্রোহীদের যৌনাঙ্গে গুলি করতে বললেন দুতের্তে

বেফাঁস কথা বলে আমারও সমালোচনার মুখে পড়েছেন ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতের্তে। গত সপ্তাহে এক সমাবেশে তিনি বলেছেন, নারী বিদ্রোহীদের হত্যা করা উচিৎ নয়। বরং তাদের যৌনাঙ্গে গুলি করা উচিৎ।

৭ ফেব্রুয়ারি প্রাক্তন কমিউনিস্ট বিদ্রোহীদের এক সমাবেশে বক্তব্য রাখছিলেন দুতের্তে। এসময় তিনি বলেন, ‘সেনাদের জানিয়ে দিন, মেয়রের কাছ থেকে নতুন আদেশ আসছে। আমরা আপনাদেরকে হত্যা করব না। আমরা স্রেফ আপনাদের যৌনাঙ্গে গুলি করব।’

যৌনাঙ্গবিহীন নারীর কোনো মূল্য নেই উল্লেখ করে দুতের্তে বলেন, ‘যৌনাঙ্গ না থাকলে তা হবে মূল্যহীন।’

গত সপ্তাহে প্রেসিডেন্টের এই মন্তব্যের পর ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়। ফিলিপাইনের নারীবাদী সংগঠন গ্যাব্রিয়েলার এক প্রতিনিধি এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘দুতের্তের সাম্প্রতিক নোংরা উক্তি প্রকাশ্যে নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতা উস্কে দেবে।’

অবশ্য বুধবার দুতের্তের মুখপাত্র প্রেসিডেন্টের পক্ষে সাফাই গেয়ে বলেছেন, ‘অনেক সময় নারীবাদীরা অতিরিক্ত প্রতিক্রিয়া দেখায়। আমি বোঝাতে চাচ্ছি এটা ছিল রসিকতা।’

নারীদের নিয়ে অবমাননাকর বক্তব্য দুতের্তের জন্য নতুন কিছু নয়। এর আগে জানুয়ারিতে ভারত সফরের সময় নয়া দিল্লিতে ভারতীয় ও ফিলিপাইনের ব্যবসায়ীদের অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে যেয়ে দুতের্তে বলেছিলেন, দর্শণার্থীদের ফিলিপাইনে আসতে উৎসাহিত করতে তিনি তাদেরকে ৪২ জন কুমারি দেওয়ার প্রস্তাব দিতে চান। ২০১৭ সালে মিস ইউনিভার্স নিয়ে কথা বলার সময় তিনি ধর্ষণ সংক্রান্ত একটি কৌতুক বলেছিলেন। গত বছরেই যেসব সেনা মুসলিম সশস্ত্র বিদ্রোহীদের সঙ্গে লড়ছে তাদের উদ্দেশে তিনি বলেছেন, সেনারা তিনজন নারীকে ধর্ষণ করলে তাদের কোনো শাস্তি দেওয়া হবে না।

You Might Also Like