নারায়ণগঞ্জে করোনায় আক্রান্ত ৮৮২ জন, কমেছে মৃত্যু

নারায়ণগঞ্জে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৮৮২ বলে জানিয়েছে জেলা সিভিল সার্জন অফিস।

সিভিল সার্জনের তথ্য মতে, ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ১৮৪ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৪০ জনের দেহে কোভড-১৯ এর ভাইরাস পজেটিভ পাওয়া গেছে।

এ নিয়ে জেলায় ২৬০৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। নতুন করে মৃত্যু নেই। করোনায় এখন পর্যন্ত জেলা মৃত্যুর সংখ্যা ৪২ জন। সুস্থ হয়েছেন ৩০ জন।

এর আগেরদিন ১৭২ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে, এর মধ্যে ৩৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (শহর, বন্দরের কদমরসুল ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা) এলাকায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৩১ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। নতুন করে ৪৭ জনের করোনা পজেটিভ রিপোর্ট এসেছে। কারো মৃত্যু ঘটেনি। এ নিয়ে মোট নমুনা সংগ্রহ করা হয় ৬২৪ জনের যার মধ্যে ৫৫১ জনের করোনা পজেটিভ। এ পর্যন্ত ২৮ জনের মৃত্যু ও সুস্থ হয়েছেন ১৮ জন।

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলায় (ফতুল্লা থানা, আলীরটেক ও গোগনগর ইউনিয়ন) গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩২ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। নতুন করে ৬৬ জনের করোনা পজেটিভ রিপোর্ট এসেছে। কারো মৃত্যু হয়নি। এ নিয়ে মোট নমুনা সংগ্রহ করা হয় ১৪১৫ জনের যার মধ্যে ২৫২ জনের করোনা পজেটিভ। এ পর্যন্ত ১০ জনের মৃত্যু ও সুস্থ হয়েছেন ৮ জন।

পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, করোনায় নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় কোনো নমুনা সংগ্রহ করা হয়নি। নতুন করে ৪ জনের করোনা পজেটিভ রিপোর্ট এসেছে। মোট নমুনা সংগ্রহ করা হয় ১৮৪ জনের যার মধ্যে ২০ জনের করোনা পজেটিভ। এ পর্যন্ত কোন মৃত্যু ঘটেনি, সুস্থ হয়েছেন ৩ জন।

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় কোনো নমুনা সংগ্রহ করা হয়নি। নতুন করে ৩ জনের করোনা পজিটিভি এসেছে। এ পর্যন্ত মোট নমুনা সংগ্রহ করা হয় ১১৩ জনের যার মধ্যে ৯৯ জনের করোনা পজেটিভ। এ পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১ জনের। সুস্থ হয়েছেন ১ জন।

সোনারগাঁও উপজেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। নতুন করে ১৩ জনের করোনা পজেটিভ রিপোর্ট এসেছে। এ নিয়ে মোট নমুনা সংগ্রহ করা হয় ১১৯ জনের যার মধ্যে ১৬ জনের করোনা পজেটিভ। এ পর্যন্ত দুইজন মারা গেছেন এবং সুস্থ হয়নি কেউ।

বন্দর উপজেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৩ জনের। নতুন করে ৭ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট পাওয়া গেছে। এ নিয়ে মোট নমুনা সংগ্রহ করা হয় ১৬৬ জনের, যার মধ্যে ১৭ জনের করোনা পজেটিভ। এ পর্যন্ত একজনের মৃত্যু এবং কেউ সুস্থ হয়নি।

You Might Also Like