‘নাগরিক সমাজের উদ্যোগ ব্যর্থ হলে ভয়াবহ পরিণতি’

নাগরিক সমাজের উদ্যোগ ব্যর্থ হলে দেশের স্বাধীনতা সাবভৌমত্ব বিপন্ন হয়ে যাবে বলে আশঙ্কা করেছেন সাবেক নির্বাচন কমিশনার বিগ্রেডিয়ার (অব:) এম সাখাওয়াত হোসেন। বলেছেন, নাগরিক সমাজ এগিয়ে এসে যে প্রস্তাব দিয়েছেন তা ব্যর্থ হলে পরিণত ভয়াবহ হবে। সকালে রাজধানীর শাহবাগ জাতীয় যাদুঘরের সামনে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ উদ্বেগের কথা জানান। ‘শান্তি-সম্প্রতি ও সমঝোতার’ দাবিতে এ মানববন্ধনের আয়োজন করে সুজন।
সাখাওয়াত হোসেন বলেন, রাজনীতিবিদরা যখন সমস্যা সমাধান করতে ব্যর্থ হয়েছে, তখনই নাগরিক সমাজ এগিয়ে এসে উদ্যোগ নিয়েছে। সরকার ও বিএনপির উচিত এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে একটি সমঝোতায় আসা। না হয় দেশের স্বাধীনতা সাবভৌমত্ব বিপন্ন হয়ে যাবে। পরিণতি ভয়াবহ হবে।
তিনি বলেন, রাজনীতি ক্রমেই রাজনীতিবিদদের হাতের বাইরে চলে যাচ্ছে। এই অবস্থা চলছে থাকলে অচিরেই পুরোপুরি রাজনীতি রাজনীতিবিদদের হাত ছাড়া হয়ে যাবে। যা দেশের জন্য কল্যাণ বয়ে আনবে না।
সুজনের সাধারণ সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার বলেন, সারাদেশে রাজনীতির নামে মৃত্যুর কাফেলা চলছে। আর এই মৃত কাফেলায় দগ্ধ হয়ে মরছে সাধারণ মানুষ। যাদের রাজনীতির সঙ্গে কোন সম্পৃক্ততা নেই। আমরা এই অচলাবস্থায় দ্রুত সমাধান চাই। এর সমাধানের জন্য জরুরি একটি সংলাপ প্রয়োজন। এই সংলাপকে ফলপ্রসু করতে দু’দলকে এগিয়ে আসতে হবে। তবে এক্ষেত্রে সরকারকে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে।
মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন তত্ত্ববধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা এম হাফিজ উদ্দিন খান, সিপিবির কেন্দ্রীয় নেতা রুহিন হোসেন প্রিন্স, সুজনের নির্বাহী সদস্য ড. হামিদা হোসেন, সুজনের সহ-সম্পাদক জাকির হোসেন, কেন্দ্রীয় সমন্বয়কারী দিলীপ কুমার সরকার প্রমুখ।

You Might Also Like