নতুন প্রজন্মের বোমারু বিমান বানাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

আসছে নতুন প্রজন্মের বোমারু বিমান। এসব বিমান দিয়ে প্রয়োজনে পাইলট ছাড়াই বিদেশের মাটিতে হামলা চালানোর পরিকল্পনা রয়েছে। আর এ জন্য খরচ ধরা হয়েছে ৮০ বিলিয়ন ডলার। প্রকল্পটি যুক্তরাষ্ট্র গ্রহণ করেছে।

সামরিক শক্তিতে চীনের এগিয়ে যাওয়া এবং বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে আধিপত্য ধরে রাখা ও সম্ভাব্য সব যুদ্ধ পরিস্থিতিতে সফলতা পাওয়ার পরিকল্পনা থেকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বিমান বাহিনীর সক্ষমতা বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছে। এর অংশ হিসেবে তথ্যপ্রযুক্তির যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আগামী ৫০ বছরের জন্য নতুন ধরনের ও উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন বোমারু বিমান তৈরি করাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র।

মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের বিমান বাহিনী জানিয়েছে, যুদ্ধবিমান নির্মাণের প্রতিষ্ঠান নর্থরোপ গ্রুম্যান করপোরেশনকে নতুন প্রজন্মের বোমারু বিমান তৈরির কাজ দেওয়া হয়েছে। বি-২ স্টিলথ বোমারু বিমান তৈরি করেছিল এই প্রতিষ্ঠান। নতুন প্রজন্মের বোমারু বিমানের কোনো নাম এখনো চূড়ান্ত হয়নি। তবে ধারণা করা হয়েছে, নাম হতে পারে বি-৩।

বিমান নির্মাণের বিখ্যাত কোম্পানি বোয়িং করপোরেশন এবং লকহিড মার্টিন করপোরেশনের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে নতুন প্রজন্মের বোমারু বিমান তৈরির ঠিকা পেয়েছে নর্থরোপ গ্রুম্যান।

মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী অ্যাশ কার্টার জানিয়েছেন, আরো দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত করতে সক্ষম বোমারু বিমান যুক্ত হলে আমেরিকার প্রতিরক্ষা কৌশল শক্তিশালী হবে এবং এতে ভবিষ্যতের বিমান বাহিনীর মেরুদ- শক্ত হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের যেসব বোমারু বিমান এখন ব্যবহৃত হয়, সেগুলো পরমাণু যুদ্ধক্ষেত্রের ঠিক উপযোগী নয়। এসব বাস্তবতার কথা মাথায় রেখে তৈরি হচ্ছে নতুন প্রজন্মের বোমারু বিমান।

তথ্যসূত্র : ফক্স নিউজ অনলাইন।

You Might Also Like