হোম » ধৈর্যের বাধ ভেঙে যাচ্ছে: রাশিয়া

ধৈর্যের বাধ ভেঙে যাচ্ছে: রাশিয়া

ঢাকা অফিস- Friday, July 14th, 2017

রুশ প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেছেন, আমেরিকাকে হয় রুশ কূটনীতিক বহিষ্কার ও কূটনৈতিক স্থাপনা জব্দ করার সিদ্ধান্তকে সংশোধন করতে হবে না হয় ওয়াশিংটনকে মস্কোর পাল্টা ব্যবস্থার জন্য অপেক্ষা করতে হবে। তিনি বলেছেন, ইস্যুটিতে রাশিয়ার ধৈর্যের বাধ ভেঙে যাচ্ছে।

পেসকভ বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, “আন্তর্জাতিক আ্ইন অনুসারে রাশিয়া এ বিষয়টি নিয়ে পাল্টা ব্যবস্থা না নিয়ে দীর্ঘ সময় ধরে অপেক্ষা করতে পারে না। তবে একই সময়ে আমরা চাই আমাদের বন্ধুরা আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘনের বিষয়টি সংশোধন করুন যা তারা নিজেরা স্বীকার করেছেন।”

গত বছরের ডিসেম্বর মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ৩০ জন রুশ কূটনীতিককে বহিষ্কারের নির্দেশ দিয়েছিলেন। এছাড়া, আমেরিকায় রাশিয়ার দুটি কূটনৈতিক স্থাপনা জব্দ করা হয়। এরমধ্যে একটি মেরিল্যান্ডে ৭২ একর জমির ওপর গড়ে ওঠা কূটনৈতিক কম্পাউন্ড এবং অন্যটি হচ্ছে নিউ ইয়র্কের একটি ভবন। এ দুটি সম্পত্তি কেনা হয়েছিল ১৯৭২ ও ১৯৫২ সালে।

এসব স্থাপনা জব্দ করার পর থেকে ইস্যুটি নিয়ে দু দেশের মধ্যে টানাপড়েন চলে আসছে। তবে মস্কো কোনো পাল্টা ব্যবস্থা নেয় নি; তারা আশা করে আসছিল যে, মার্কিন নতুন প্রশাসনের সময় দু পক্ষের মধ্যে সম্পর্কের উন্নয়ন ঘটবে এবং এ জটিলতার অবসান হবে। কিন্তু ডোনাল্ড ট্রাম্পের ক্ষমতা নেয়ার প্রায় ছয় মাস পার হলেও বিষয়টি নিয়ে তিনি বা তার প্রশাসন কোনো উদ্যোগ নেয় নি। গত সপ্তাহে জার্মানির হামবুর্গ শহরে অনুষ্ঠিত জি-২০ সম্মেলনের অবকাশে ট্রাম্পের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকের সময় রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বিষয়টি তুলেছিলেন কিন্তু মার্কিন প্রেসিডেন্ট পরিষ্কার করে কিছু বলেন নি।