ধর্ষণের মিথ্যা অভিযোগ করায় তরুণীর জেল

ধর্ষণের অভিনয়ের মাধ্যমে চিৎকার করে লোক জড়ো ও তাদের হাতে এক ব্যক্তি গণপিটুনি খাওয়ানোর অভিযোগে ২০ বছর বয়স্ক লাতিকা মায়েসকে বৃহস্পতিবার ৬ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন মার্কিন একটি আদালত। 

খবরে বলা হয়, মায়েসের এক বন্ধুকে মারধর করেন ডোনাল্ড রবিনসন্স নামের এক তরুণ। এর কয়েক মাস পর ২ সেপ্টেম্বর ২০১৩ সালে বাল্টিমোরের একটি রাস্তা দিয়ে একাকি যাচ্ছিলেন রবিনসন্স। এ সময় বন্ধুকে মারার প্রতিশোধ নিতেই লোকজনকে রবিনসন্সকে দেখিয়ে মায়েস বলেন, ‘সে আমাকে ধর্ষণ করেছে, সে একজন ধর্ষক।’ এরপর  মায়েসের বাবা ও একদল লোক দৌঁড়ে এসে রবিনসন্সকে ধরে বেদম প্রহার করে। রাস্তার লোকজনও এসে এতে যোগ দেয়। মারাত্মক আহত অবস্থা হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে।

 

এরপর মায়েস, তার বাবা ও হামলায় নিয়োজিত অনেকের নামে মামলা ঠুকে দেন রবিনসন্স। পরে মামলার তদন্তে সত্যি বিষয়টি উঠে  আসে।

 

বিচারক ডোরি বলেন, মায়েস ও তার বাবা হত্যার উদ্দেশে এ হামলা চালিয়েছিল। তাই তারা এ দায় এড়াতে পারে না। এ জন্য মায়েসকে ৬ বছর, তার বাবাকে দুই ও অন্য দুজনকে দুই বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হলো।
তথ্যসূত্র : ডেইলি মেইল।

You Might Also Like