দ্বিতীয় দফার ভোট গ্রহণ, শুরুতেই ইভিএম বিকলের অভিযোগ

ভারতে দ্বিতীয় দফার ভোটগ্রহণ ঘিরে কড়া নিরাপত্তার বন্দোবস্ত করেছে নির্বাচন কমিশন। পশ্চিমবঙ্গ-সহ দেশের মোট ১২টি রাজ্যে ৯৫টি আসনে বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দফার ভোটগ্রহণ। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি আসনে ভোট তামিলনাড়ুতে। ৩৯টি আসনের মধ্যে ৩৮টি আসনেই দ্বিতীয় দফায় ভোটগ্রহণ। টাকা বিলির অভিযোগে রাষ্ট্রপতির অনুমোদন নিয়ে ভেলোর কেন্দ্রের নির্বাচন বাতিল করে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। গোটা তামিলনাড়ুতেই এক দফায় ভোটগ্রহণ হচ্ছে।

এর পর থাকছে কর্নাটক। কর্নাটকের ২৮টি লোকসভা আসনের মধ্যে অর্ধেক আসনেই ভোটপর্ব সারা হচ্ছে এই পর্বে। তৃতীয় দফায় ভোটগ্রহণ হবে বাকি ১৪টি আসনে। রাজনৈতিক দিক থেকেও কর্নাটক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কংগ্রেস-জনতা দল ইউনাইটেড (জেডিএস)-এর সঙ্গে মুখোমুখি লড়াই বিজেপির।

তামিলনাড়ুর পরেই দ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ রাজ্য উত্তরপ্রদেশ। পশ্চিমবঙ্গের মতোই উত্তরপ্রদেশেও সাত দফায় ভোটগ্রহণ। তবে আসন সংখ্যা এ রাজ্যের প্রায় দ্বিগুণ। ৮০টি আসনের মধ্যে প্রথম দফায় আটটি কেন্দ্রে ভোট হয়েছে। আজ দ্বিতীয় দফাতেও আটটি আসনেই ভোটগ্রহণের প্রস্তুতি চূড়ান্ত। বিহারের পাঁচটি আসনের ভোটগ্রহণের উপরও নজর থাকবে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের।

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

এর পর মহারাষ্ট্র। রাজ্যে ৪৮টি আসনের ভোট চার দফায়। প্রথম দফায় সাতটি আসনে ভোট হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দফায় ১০টি আসনের ভোট। এখানে কংগ্রেসের সঙ্গে শরদ পওয়ারের এনসিপির জোট রয়েছে। মহারাষ্ট্রের রাজনীতিতে শিবসেনা বরাবরই গুরুত্বপূর্ণ ফ্যাক্টর। বিজেপির শরিক শিবসেনা। ফলে কার্যত সরাসরি ওয়ান টু ওয়ান ফাইট মহারাষ্ট্রে। এর বাইরে অসম, বিহার, ছত্তীসগঢ়, জম্মু-কাশ্মীর, মণিপুর, ওড়িশা পুদুচেরি, এবং পশ্চিমবঙ্গ। নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে ত্রিপুরা পূর্ব কেন্দ্রের ভোট পিছিয়ে গিয়েছে। ভোট নেওয়া হবে পরের দফায়।

ভোটগ্রহণের জন্য কমিশনের চূড়ান্ত প্রস্তুতি সারা। ভোটগ্রহণ ঘিরে কড়া নিরাপত্তার বন্দোবস্ত করেছে নির্বাচন কমিশন। কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়াও সংশ্লিষ্ট রাজ্যগুলির পুলিশকর্মীরাও নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছেন। সকাল থেকেই বুথে বুথে পৌঁছে গিয়েছেন ভোটকর্মীরাও।

You Might Also Like