দেশে ফিরলেন লতিফ সিদ্দিকী

গ্রেফতারি পরোয়ানা নিয়েই দেশে ফিরলেন আওয়ামী লীগ ও মন্ত্রিসভা থেকে বহিষ্কৃত আবদুল লতিফ সিদ্দিকী। ইন্ডিয়ান এয়ার লাইন্সের একটি বিমানে রবিবার রাত পৌনে ৯টায় তিনি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন।

বিমানবন্দরের দায়িত্বরত এপিবিএনের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আসমা আরা বেগম লতিফ সিদ্দিকীর বিমানবন্দরে অবতরণের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, লতিফ সিদ্দিকী বর্তমানে বিমানবন্দরের ভিআইপি লাউঞ্জে অবস্থান করছেন।

তাবলিগ জামাত ও প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়কে নিয়ে কটূক্তি করায় ১২ অক্টোবর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে লতিফ সিদ্দিকীকে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্যপদ থেকে বহিষ্কার করা হয়। ২৪ অক্টোবর আওয়ামী লীগের প্রাথমিক সদস্যপদ থেকেও তাকে বহিষ্কার করা হয়।

হজ, তাবলিগ জামাত ও প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়কে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন থানায় মামলা হয়। মামলার পরিপ্রেক্ষিতে তার বিরুদ্ধে সমন এবং পরবর্তী সময়ে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়।

২১ সেপ্টেম্বর বিকেলে নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসের একটি হোটেলে নিউইয়র্ক টাঙ্গাইল সমিতির সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে লতিফ সিদ্দিকী বলেন, ‘আমি কিন্তু হজ আর তাবলিগ জামাতের ঘোরতর বিরোধী। আমি জামায়াতে ইসলামীরও বিরোধী।’

তার পুরো বক্তব্যের ভিডিও ক্লিপ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইটে ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।

ওই ভিডিওতে তাকে বলতে দেখা যায়, ‘এ হজে যে কত ম্যানপাওয়ার (জনশক্তি) নষ্ট হয়। এ হজের জন্য ২০ লাখ লোক আজ সৌদি আরবে গেছেন। এদের কোনো কাজ নাই। কোনো প্রডাকশন নাই, শুধু ডিডাকশন দিচ্ছে। শুধু খাচ্ছে আর দেশের টাকা বিদেশে দিয়ে আসছে।’

অনুষ্ঠান তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে ও তার তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়কে নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘কথায় কথায় আপনারা জয়কে টানেন কেন। জয় ভাই কে? জয় বাংলাদেশ সরকারের কেউ নয়। তিনি সিদ্ধান্ত নেওয়ারও কেউ নন।’

You Might Also Like