হোম » দেওবন্দের নাম ‘দেব ভ্রন্দ’ করার দাবি জানালেন নয়া বিজেপি বিধায়ক ব্রিজেশ সিং

দেওবন্দের নাম ‘দেব ভ্রন্দ’ করার দাবি জানালেন নয়া বিজেপি বিধায়ক ব্রিজেশ সিং

ঢাকা অফিস- শুক্রবার, মার্চ ১৭, ২০১৭

ভারতের উত্তর প্রদেশে মুসলিম অধ্যুষিত দেওবন্দের নাম ‘দেব ভ্রন্দ’ করার দাবি জানালেন রাজ্যের নবনির্বাচিত বিজেপি বিধায়ক কুনওয়ার ব্রিজেশ সিং। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত বিধানসভা নির্বাচনে তিনি উত্তর প্রদেশের দেওবন্দ আসন থেকে জয়ী হয়ে এলাকাটির নাম পরিবর্তনের প্রস্তাব দিয়েছেন।

দেওবন্দ কেন্দ্রটি উত্তর প্রদেশের সাহারানপুর জেলায় অবস্থিত। এখানকার মোট জনসংখ্যার ৬৫ শতাংশই মুসলিম।

আজ (শুক্রবার) গণমাধ্যমে প্রকাশ, বিজেপি বিধায়ক ব্রিজেশ সিংয়ের দাবি, ‘ওই এলাকাটি মহাভারতের সময়কালের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট। এটি দারুল উলুম দেওবন্দের চেয়ে বেশি মহাভারতের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট হওয়ার জন্য প্রসিদ্ধ। দেওবন্দের স্থান সবসময় ‘দেব ভ্রন্দ’ নামে খ্যাত ছিল। এখানেই ছিল মহাভারতের রণখণ্ডী এবং পঞ্চ পান্ডব এখানেই পুজো করেছিলেন। এখানে যক্ষ যুধিষ্ঠিরকে প্রশ্ন করেছিলেন।’

রাজ্য বিধানসভায় তিনি ওই নাম প্রস্তাবের বিষয়টি উত্থাপন করবেন।
ব্রিজেশ সিং দেওবন্দ আসন থেকে বিএসপি’র মজিদ আলীকে ২৯ হাজার ৪১৫ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে বিজেপি বিধায়ক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। হোলি মিলন উপলক্ষে অনুষ্ঠানে তিনি ওই নাম পরিবর্তনের দাবি তোলেন।

২০০২ সাল থেকে ২০১৭ সালের বিধানসভা নির্বাচনের আগে পর্যন্ত দেওবন্দ আসনটি সমাজবাদী পার্টি অথবা বহুজন সমাজ পার্টির দখলে ছিল। এর আগে ১৯৯৩ এবং ১৯৯৬ সালে বিজেপিও এখানে জিতেছিল। তার আগে পর্যন্ত দেওবন্দে কংগ্রেসের শক্ত ঘাঁটি ছিল। চলতি ২০১৭ সালে সমাজবাদী পার্টি এবং বহুজন সমাজ পার্টির মধ্যে ভোট বিভাজনের সুযোগে গেরুয়া পার্টি ফায়দা লাভ করেছে।