দুধ থেকে তৈরি মোড়ক খাদ্য কেবল ভালই রাখবে না, প্রয়োজনে খাওয়াও যাবে!

খাদ্যবস্তু মোড়ানোর কাজে অদূর ভবিষ্যতে ব্যবহার করা হবে দুধ থেকে তৈরি প্ল্যাস্টিক। নতুন এ মোড়ক শতভাগ পরিবেশ বান্ধব হবে। একই সঙ্গে খাদ্যগুণও ভালভাবে বজায় রাখতে সাহায্য করবে।

বর্তমানে খাদ্যদ্রব্য মোড়ানোর জন্য যে প্ল্যাস্টিক ব্যবহার হয় তা জ্বালানি তেল থেকে তৈরি হয়। এ প্ল্যাস্টিক মোটেও পরিবেশ বান্ধব নয়। নয় স্বাস্থ্য সম্মতও। ক্ষতিকারক নানা রাসায়নিক উপাদান এমন মোড়ক থেকে খাদ্যে মিশে যায়। তদুপরি খাদ্যকেও যথাযথ ভাবে সুরক্ষা দেয় না চলতি মোড়ক। তাতে বিতরণের সময় অনেক খাদ্যেই পচে যায়।

কিন্তু দুধের আমিষ থেকে তৈরি মোড়ক খাদ্যে অক্সিজেন ঠেকানোর কাজে পাঁচশ’ গুণ বেশি কার্যকর হবে। টেকসইও হবে। অন্যদিকে দুধ থেকে তৈরি বলে এ গুলো হবে জৈব পচনশীল। আরো মজার কথা হলো, ইচ্ছে করলে খাবারের সাথে সাথে মোড়কও খাওয়া যাবে।

অবশ্য, বর্তমানে বাজারে কিছু কিছু পচনশীল খাদ্য-মোড়ক পাওয়া যায়। এ গুলো তৈরি হয়েছে শ্বেতসার থেকে। এ জাতীয় মোড়কের ছিদ্রের আকার তুলনামূলক ভাবে বড় হওয়ায় ও পথে অনায়াসে ঢুকতে পারে অক্সিজেন। তাতে খাদ্য দ্রুত নষ্ট হয়। কিন্তু দুধ থেকে তৈরি মোড়কের ছিদ্র তুলনামূলক ভাবে আকারে অনেক ছোট। ফলে আঁটসাঁট ও পথে ঢুকতে পারে না অক্সিজেন। এ ছাড়া, দুধ থেকে তৈরি মোড়কে ইচ্ছা মতো সুগন্ধ, রং এবং স্বাদ দেয়াও সম্ভব।

আগামী তিন বছরের মধ্যে এ মোড়ক বাজারে আসবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়েছে। আজ(রোববার) মার্কিন রাসায়নিক সমিতির ২৫২তম বৈঠকে এ মোড়ক উপস্থাপন করা হয়েছে।

You Might Also Like