দুই নেত্রীকে জাতিসংঘ মহাসচিবের চিঠি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে চিঠি দিয়েছেন জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন। চিঠিতে তিনি চলমান সহিংস রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে সঙ্কট নিরসনে জাতিসংঘের সহকারী মহাসচিব অস্কার ফার্নান্দেস তারানকোকে এ বিষয়টি দেখভাল করার দায়িত্ব দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন। মহাসচিব এ ব্যাপারে তারানকোকে সহযোগিতা করার জন্য দুই নেত্রীর প্রতি আহ্বান জানান। বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইলে জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি একে আবদুল মোমেন টেলিফোনে যুগান্তরকে বলেছেন, অস্কার ফার্নান্দেস তারানকো আমাকে জানিয়েছেন যে, তাকে বাংলাদেশের বর্তমান পরিস্থিতি দেখাশোনার জন্য জাতিসংঘ মহাসচিব দায়িত্ব দিয়েছেন। এ লক্ষ্যে তিনি আমার সঙ্গে বৈঠক করতেও চেয়েছেন। আমি বলেছি, অবশ্যই বসে আলাপ করব। দুই নেত্রীর কাছে মহাসচিবের চিঠি সম্পর্কে জানতে চাইলে আবদুল মোমেন বলেন, কিছু একটা পাঠাচ্ছে। এটা আমি এখনও দেখিনি। জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র স্টিফানে দুজারিক ১২ ফেব্রুয়ারি নিয়মিত সংবাদ ব্রিফিংকালে জানিয়েছেন, জাতিসংঘ মহাসচিব বাংলাদেশে সহিংস রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে উদ্বিগ্ন। এ সমস্যার শান্তিপূর্ণ সমাধান চায় জাতিসংঘ। এ ব্যাপারে মহাসচিব অস্কার ফার্নান্দেস তারানকোকে বাংলাদেশের বিষয়টি দেখাশোনার দায়িত্ব দিয়েছেন। তিনি বাংলাদেশ সরকার ও বিরোধী দলগুলোর সঙ্গে লিয়াজোঁ করছেন বলেও জানান দুজারিক। নতুন দায়িত্ব পাওয়ার পর অস্কার ফার্নান্দেস তারানকো যুক্তরাষ্ট্রে দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়াবিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিশা দেশাই বিসওয়ালের সঙ্গে বৈঠক করেন। সেখানে বাংলাদেশের পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তারা উভয়েই বর্তমান সহিংস পরিস্থিতিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। এদিকে ঢাকায় খালেদা জিয়ার দফতরের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট একটি সূত্রও খালেদা জিয়ার কাছে বান কি মুনের চিঠি পৌঁছার খবরটি নিশ্চিত করেছেন।

You Might Also Like