দিয়াজ হত্যা: ১০ আসামিকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ

চট্টগ্রামে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা দিয়াজ ইরফান চৌধুরী হত্যা মামলার ১০ আসামিকে গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে আসামিদের দেশত্যাগেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

আজ সোমবার চট্টগ্রামের মুখ্য বিচারিক হাকিম মুন্সী মশিউর রহমান এই আদেশ দিয়েছেন।

বাদীর আইনজীবী ও দিয়াজের বড় বোন জুবাঈদা ছরওয়ার চৌধুরী নীপা এ খবর নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, আসামিদের গ্রেপ্তার করে জিজ্ঞাসাবাদ এবং তারা যাতে বিদেশে পালিয়ে যেতে না পারেন, এ জন্য পাসপোর্ট জব্দের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে বিমানবন্দরসহ দেশের সব সীমান্তেও আসামিদের বিষয়ে তথ্য পাঠিয়ে সতর্ক করার কথা বলেছেন আদালত।

এর আগে বাদী দিয়াজের মা জাহেদা আমিন চৌধুরী আদালতে আবেদন করলে তার আবেদন গ্রহণ করে আদালত এই আদেশ দেন।

গত বছরের ২০ নভেম্বর রাতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের দুই নম্বর গেট সংলগ্ন এলাকায় ভাড়া বাসা থেকে দিয়াজের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। পুলিশ লাশ উদ্ধারে পর জানায় দিয়াজ আত্মহত্যা করেছেন।

পুলিশের বক্তব্য প্রত্যাখান করে তার পরিবার দাবি করেন, দিয়াজকে হত্যা করে মরদেহ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। পরে ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগ আত্মহত্যা বলে প্রতিবেদন দেয়। তা প্রত্যাখান করে ২৪ নভেম্বর আদালতে দিয়াজের মা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। মামলায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর আনোয়ার হোসেন, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি আলমগীর টিপুসহ ১০ জনকে আসামিকে করা হয়।

পরে মামলা তদন্তভার দেওয়া হয় সিআইডিকে। আদালতের নির্দেশে দিয়াজের দ্বিতীয় দফা ময়নাতদন্ত করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগ। গত ৩০ জুলাই দ্বিতীয় ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে দিয়াজের মৃত্যু আঘাতপূর্বক শ্বাসরোধজনিত বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

You Might Also Like