দিল্লিতে পানির ট্যাঙ্কার কেলেঙ্কারি: কেজরিওয়াল ও শীলা দীক্ষিতের বিরুদ্ধে এফআইআর

দিল্লিতে পানির ট্যাঙ্কার কেলেঙ্কারির ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল এবং দিল্লির সাবেক মুখ্যমন্ত্রী শীলা দীক্ষিতের বিরুদ্ধে এফআইআর করেছে এসিবি বা দুর্নীতি দমন শাখা। এর প্রতিক্রিয়ায় গতরাতে ক্ষুব্ধ কেজরিওয়াল একের পর এক টুইটার বার্তায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির তীব্র সমালোচনা করেন।

রাত ১০ টা নাগাদ কেজরিওয়াল বলেন, ‘মোদিজী, আপনি (রবার্ট) ভদ্রর বিরুদ্ধে এফআইআর করেননি, সোনিয়া গান্ধীর বিরুদ্ধে এফআইআর করেননি। কোনো দুর্নীতির বিরুদ্ধে আপনি এফআইআর করেননি, যাদের কথা তুলে ধরে আপনি প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন?’
কেজরিওয়াল বলেন, ‘সব তদন্ত এজেন্সি আপনার অধীনে রয়েছে। সিবিআই, পুলিশ এবং এসিবি সব আমার পিছনে ছেড়ে রেখেছেন। আমার বিরুদ্ধে সিবিআই রেইড হয়েছে, কিন্তু কিছুই পায়নি তারা। এবার আপনার এফআইআরকে স্বাগত।’
কেজরিওয়াল টুইটার বার্তায় বলেন, ‘আমি খুশি যে আপনি স্বীকার করেছেন আপনার লড়াই সরাসরি আমার সঙ্গে।’
অন্য একটি বার্তায় তিনি বলেন, ‘মোদিজী আমরা আপনার সিবিআই, এসিবি ইত্যাদিকে ভয় করি না।’
এদিকে, ট্যাঙ্কার কেলেঙ্কারির অভিযোগে এফআইআর প্রসঙ্গে দিল্লির সাবেক মুখ্যমন্ত্রী এবং কংগ্রেস নেত্রী শীলা দীক্ষিত এ নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি। তিনি বলেছেন, ‘ওদের যা করার আছে, করতে দিন। এ নিয়ে কিছু বলব না।’
২০১২ সালে শীলা দীক্ষিত মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন দিল্লি পানি বোর্ডেরও চেয়ারম্যান ছিলেন। সে সময় ৩৮৫ টি স্টিলের ট্যাঙ্কার ভাড়ায় নিতে ৪০০ কোটি টাকার দুর্নীতি হয়েছে বলে অভিযোগ। বিজেপি নেতা বিজেন্দ্র গুপ্তা কেজরিওয়ালের বিরুদ্ধে তদন্ত রিপোর্ট ধামাচাপা দেয়ার অভিযোগ করেন। অন্যদিকে, দিল্লি সরকারের পক্ষ থেকে শীলা দীক্ষিতের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানানো হয়।
এসিবি প্রধান মুকেশ কুমার মীনা বলেন, দুর্নীতি প্রতিরোধ আইন এবং ভারতীয় দণ্ডবিধির বিভিন্ন ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। যারা তদন্তের আওতায় আসবেন, তাদের শিগগিরি জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। -পাসটুডে

You Might Also Like