‘দরকার হলে রণাঙ্গনেও রুশ সেনা পাঠাতে বলব মস্কোকে’

সিরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়ালিদ মোয়াল্লেম বলেছেন, তার দেশে বিদেশী মদদপুষ্ট সন্ত্রাসের ফলে সৃষ্ট সংকট জোরদার হয়ে উঠলে দামেস্ক রুশ সেনা মোতায়েনের আহ্বান জানাবে মস্কোকে।

তিনি গতকাল (বৃহস্পতিবার) বলেছেন, ‘সিরিয়ার রণাঙ্গনে কোনো রুশ সেনা আমাদের সঙ্গে যৌথ অভিযানে শরিক হয়নি, তবে আমরা যদি তাদের অংশগ্রহণের প্রয়োজন অনুভব করি তাহলে আমরা তা খতিয়ে দেখব এবং এ ব্যাপারে আহ্বান জানাব।’

সিরিয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার দেশের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনকে আরও বলেছেন, ‘এখন পর্যন্ত সিরিয় সেনারাই যুদ্ধ চালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে এবং আমাদের এখন দরকার আরও গোলা-বারুদ ও সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর উন্নত অস্ত্র মোকাবেলা করার যোগ্য সমরাস্ত্র।’

রাশিয়ার সঙ্গে সিরিয়ার সম্পর্ককে কৌশলগত বলে তুলে ধরে মোয়াল্লেম বলেছেন, মস্কো এ পর্যন্ত কেবল অস্ত্র সরবরাহ ও নতুন অস্ত্র পরিচালনার প্রশিক্ষণের মধ্যেই সিরিয়ার প্রতি সামরিক সহযোগিতাকে সীমিত রেখেছে।

তিনি এমন সময় এইসব বক্তব্য রাখলেন যখন সিরিয়ার এক সামরিক সূত্র জানিয়েছেন, সরকারি সেনারা সম্প্রতি আকাশ ও স্থল যুদ্ধের নতুন রুশ অস্ত্র ব্যবহার শুরু করেছে।

পরিচয় দিতে অনিচ্ছুক ওই সূত্র বলেছেন, এইসব অস্ত্রের কার্যকারিতা খুবই উচ্চ মাত্রার এবং লক্ষ্যে আঘাত হানার ক্ষেত্রে অনেক বেশি যথাযথ। এরই মধ্যে সিরিয় সেনারা এইসব অস্ত্র পরিচালনার প্রশিক্ষণ নিয়েছেন বলে তিনি জানান।

এর আগে বুধবার জাতিসংঘে নিযুক্ত সিরিয় রাষ্টদূত বাশার জাফারি বলেছেন, সিরিয়ায় দায়েশ বা আইএসআইএল-এর সন্ত্রাসীদের ওপর বিমান হামলা চালাতে পারবে রাশিয়া ঠিক যেভাবে মার্কিন বিমান হামলা চালানো হচ্ছে সিরিয়ায়।

কট্টর ইসরাইল বিরোধী আসাদ সরকারকে উৎখাতের জন্য ২০১১ সাল থেকে বিদেশী মদদপুষ্ট সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলো সিরিয়ার সরকারি সেনাদের সঙ্গে সংঘাত চালিয়ে যাচ্ছে। দেশটির সংঘাতে এ পর্যন্ত প্রায় আড়াই লাখ সিরিয় নিহত হয়েছে এবং দেশ ছেড়ে চলে যেতে বাধ্য হয়েছে ৪০ লাখ সিরিয়। এ ছাড়াও ৭২ লাখ সিরিয় দেশটির ভেতরে নিজ অঞ্চল ছেড়ে অন্য অঞ্চলে যেতে বাধ্য হয়েছে।

You Might Also Like