দক্ষিণ চীন সাগরে সবচেয়ে বড় রণতরী পাঠাচ্ছে জাপান

দক্ষিণ চীন সাগরে সবচেয়ে বড় যুদ্ধজাহাজ পাঠানোর পরিকল্পনা করছে জাপান। আগামী মে মাসে হেলিকপ্টারবাহী জাহাজ ইজুমোকে তিন মাসের সেখানে পাঠানো হবে। তিনটি সূত্রের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স সোমবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

সূত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানিয়েছে, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ওই অঞ্চলে এটি হবে জাপানের নৌবাহিনীর সবচেয়ে বড় মহড়া।

দক্ষিণ চীন সাগরে চীনের সঙ্গে জাপানের কোনো বিরোধ নেই তবে পূর্ব চীন সাগরে বিরোধ চলছে। পূর্ব চীন সাগরের সেনকাকু বা দিয়াউ দ্বীপপুঞ্জ নিয়ে চীন ও জাপানের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছে। উভয় দেশই দ্বীপপুঞ্জটিকে নিজের বলে দাবি করছে। জাপান দ্বীপটির নাম দিয়েছে সেনকাকু । আর চীন নাম দিয়েছে দিয়াউ। এই বিরোধের জের ধরে দুটি দেশ ওই দ্বীপপুঞ্জ এলাকায় বেশ কয়েকবার পাল্টাপাল্টি জাহাজ ও বিমান পাঠিয়েছে। সাগরের কিছু এলাকায় বিমান প্রতিরক্ষা অঞ্চল প্রতিষ্ঠারও ঘোষণা দিয়েছিল চীন।

দুই বছর আগে জাপানের নৌবাহিনীতে কমিশন পায় হেলিকপ্টারবাহী রণতরী ইজুমো। রয়টার্স জানিয়েছে, জাহাজটি মালাবরে আমেরিকা ও ভারতের সঙ্গে নৌমহড়া চালানোর জন্য ভারত মহাসাগরে যাবে। তিন মাসের অভিযানে ইজুমো জাহাজ সিঙ্গাপুর, ফিলিপাইন, ইন্দোনেশিয়া ও শ্রীলঙ্কার বন্দরে ভিড়বে। তবে দক্ষিণ চীন সাগরের যে অংশকে চীন তার নিজের এলাকা বলে দাবি করছে সেখানে জাহাজটি যাবে কিনা তা পরিষ্কার নয়। আগস্ট মাসে জাহাজটি জাপানে ফিরে যাবে।

জাপানের উপকূল প্রতিরক্ষা বাহিনীর এক সদস্য বলেছেন, ‘ইজুমোর সামরিক সক্ষমতা যাচাই করার জন্য তিন মাসের অভিযানে পাঠানো হচ্ছে এবং দক্ষিণ চীন সাগরে মার্কিন নৌবাহিনীর সঙ্গে জাহাজটি প্রশিক্ষণ নেবে।’

You Might Also Like