‘থিং ইজ, আমি খুবই রাগী মাইয়া’

যেসব মেয়েদের রাগ বেশি থাকে, তাদের ভালোবাসার ক্ষমতা অনেক তীব্র। তারা রাগী হয় অনেক, বিপদও ডেকে আনে বেশি, কিন্তু তারাই স্বচ্ছ থাকে সব জায়গায়।

তারা নিজের মধ্যে কোন কুটিলতা রাখেনা। আর যাই করুক না কেন… তাদের কাছে প্রতারনার শিকার হবার হার খুবই কম। তারা বেশির ভাগ সময়ই নিজের আবেগ লুকিয়ে রাখে। ভালোবাসার প্রকাশ এদের কাছে তুচ্ছতার শামিল,তাই এরা খুবই কম প্রকাশ করে তাদের আবেগ বিশেষত ভালোবাসা। কিন্তু আবার তারা ভালোবাসার কাঙাল খুব হয়। পছন্দের মানুষটার কাছ থেকে ভালোবাসার প্রকাশ পাবার জন্য এরা মুখিয়ে থাকে।

এরা আবার কিছুটা চালাক এবং বুদ্ধিমতিও হয়। কিন্তু তা সবার অগোচরে রাখতে পছন্দ করে। বাহিরে নিজেকে বোকা উপস্থাপন করে। এরা কথা কম বলে অনেক সময়। রাগী মেয়েদের সবচেয়ে বেশি অসুবিধা হল জীবনে একবার না একবার এরা একবার ধোঁকা খাবেইই…

কিন্তু তা স্বত্তেও এরা অনেক কিছুই সহ্য করে উঠে দাঁড়াতে পারে। এটা এদের প্লাস পয়েন্ট। যতই ঝড়ঝাপটা আসুক না কেনো, এরা ভাঙ্গে…কিন্তু নষ্ট হয়না কখনোই। রাগী মেয়েরা একবার ধাক্কা খেলে পরে আবার খুবই সাবধান হয়ে যায়। তখন এদের ধোঁকা দেয়া খুবই কঠিন।

রাগী মেয়েদের একবার কোন পণ করলে তা করেই ছাড়ে। এরা ওয়াদা কখনও ভঙ্গ করেনা এবং খুবই সংসারী হয়।
কোন রাগী মেয়েকে পুরোটা জয় করে নিতে পারে যেজন , দুনিয়ার সবচেয়ে সুখী হয় সেজন।

থিং ইজ, আমি খুবই রাগী মাইয়া
বিদ্রঃ মেঘ দেখে কেও করিস নে ভয়, আড়ালে তার সূর্য হাসে।-ফেসবুক থেকে

You Might Also Like