তুরস্কে বহু সেনা কর্মকর্তা আটক, ৯০ জন নিহত

তুরস্কে একটি সামরিক অভ্যুত্থানের চেষ্টার পর তাতে নেতৃত্বদানকারী কর্মকর্তা সহ বহু সেনা কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
পাঁচ জন জেনারেল ও উনত্রিশ জন কর্নেলকে তাদের পদ থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে।
সবমিলিয়ে ১৫ শর বেশি সেনা গ্রেফতার হয়েছে।
তবে ইস্তানবুল ও আংকারায় এখনো থেমে সংঘর্ষের খবর আসছে।
গত রাতে ইস্তানবুল ও আংকারা শহুরে হটাত করেই বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ যায়গায় অবস্থান নেয় সেনারা, গড়াতে থাকে ট্যাংক, খুব নিচ দিয়ে উড়ে যেতে থাকে সামরিক বিমান।
বোমা হামলা ও বন্দুক যুদ্ধের কবলে পড়ে ৯০ জন নিহত হয়েছেন ও কয়েকশো আহত হয়েছেন।
তাদের বেশিরভাগই বেসামরিক নাগরিক।
সাধারণ জনগণের অনেককেই রাস্তায় সেনাদের ধাওয়া করতে দেখা গেছে।
প্রেসিডেন্ট এর্দোয়ানের ডাকে সাড়া দিয়ে হাজার হাজার সমর্থক বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ করছে।
মি. এর্দোয়ানের হাজার হাজার সমর্থকের বিক্ষোভের মুখে সেনা বাহিনীর বিদ্রোহী অংশ ইস্তানবুল বিমান বন্দর থেকে সড়ে যেতে বাধ্য হয়।
অভ্যুত্থানের চেষ্টার পর বহু সেনা আত্মসমর্পণ করেছেন।
বসফরাস ব্রিজের ওপরে তাদের দেখা যায় ট্যাংক থেকে বেরিয়ে মাথার ওপরে হাত তুলে হেটে যাচ্ছেন।
প্রেসিডেন্ট রিচেপ তাইয়েপ এরদোয়ান টেলিভিশনে এক ভাষণে কড়া ভাষায় হুশিয়ারি দিয়েছেন।
তিনি বলেছেন তার সরকারকে হটিয়ে দেয়ার জন্য যে অভ্যুত্থান হয়েছে তা রাষ্ট্রদ্রোহিতা।
তিনি বলেছেন, সেনাবাহিনীতে আগাছা উৎপীড়নের সময় এসেছে।

You Might Also Like