হোম » তবুও মাশরাফিকে পাশে পাচ্ছেন তারা

তবুও মাশরাফিকে পাশে পাচ্ছেন তারা

ঢাকা অফিস- Saturday, June 17th, 2017

কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে খুব বিরক্ত সাব্বির রহমানের ওপর! ম্যাচের পর ম্যাচ একক সিদ্ধান্তে সাব্বিরকে তিনে খেলিয়ে যাচ্ছেন কোচ। কিন্তু সাব্বির কাজের কাজ কিছু করতে পারছেন না।

সাব্বিরের আউটের ধরন নিয়ে বেশি বিরক্ত কোচ। বিরক্ত সৌম্য সরকারের ওপরও। বারবার সুযোগ দেওয়ার পরও সৌম্য হতাশ করছেন কোচকে, দলকে। ইংল্যান্ডে হোটেল ত্যাগ করার পূর্বে সাব্বিরকে নিয়ে হাথুরুসিংহে বলেন,‘ঘরোয়া ক্রিকেটে আবারও প্রমাণ করে সাব্বিরকে তিনে ফিরতে হবে।’

কোচের কথায় স্পষ্ট সাব্বির তিন নম্বর পজিশন হারাচ্ছেন! দলের সবচেয়ে ভালো ব্যাটসম্যানের জায়গা সেটা। কিন্তু সাব্বির নিজেকে মেলে ধরতে ব্যর্থ। ভালো শুরুর পর নিজের উইকেট প্রতিপক্ষকে উপহার দিয়ে আসছেন বারবার।

সাব্বির কিছুটা রান পেলেও সৌম্যর ব্যাটে রান নেই। চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে চার ইনিংসে সৌম্যর রান ৩৪। ইনিংসগুলো ছিল এরকম- ২৮, ৩, ৩, ০। ইমরুলকে বসিয়ে রেখে সৌম্যকে বারবার সুযোগ দেওয়া কতটুকু যৌক্তিক? অফ-ফর্মে থাকা সাব্বিরকেও তিনে খেলানো কতটুকু যুক্তিযুক্ত? জানতে চাওয়া হয়েছিল দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার কাছে।

ইংল্যান্ড থেকে শনিবার দেশে ফিরে মাশরাফি বলেন,‘চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে তাদের পারফরম্যান্স আশানুরূপ হয়নি। তাদের উন্নতিও করতে হবে।’ মাশরাফির কন্ঠে হতাশা থাকলেও বরাবরের মতো তরুণদের ওপর বিশ্বাস রাখছেন। আস্থা হারাচ্ছেন না। শুধু সাব্বির রহমান ও সৌম্য সরকার না, মাশরাফি কথা বলেছেন পেসার মুস্তাফিজুর রহমানকে নিয়েও। তিন তরুণ ক্রিকেটার এবারের চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে ফ্লপ।

তাদের ওপর আস্থা রেখে মাশরাফি বলেন,‘তরুণ ক্রিকেটারদের এই স্টেজে পারফরম্যান্স করাটা এতটা সহজ নয়। ২০১৯ বিশ্বকাপে এরাই হয়তো অনেক দায়িত্ব নিয়ে খেলতে পারবে। দুই বছর পর তারা আরো অভিজ্ঞ হবে। তবে এখন উন্নতি করার সময়। এখন যেভাবে নিজেদের খেলাটাকে উন্নতি করছে, সেটাকে আরো এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। ওদেরকে আরো সিরিয়াস হতে হবে, দায়িত্বশীল হয়ে খেলতে হবে। আমি নিশ্চিত ওরা ২০১৯ বিশ্বকাপে ভালো কিছু করবে।’

দেশে ফিরে বিমানবন্দরে কারও সঙ্গে কথা বলেননি সাব্বির, সৌম্য, মুস্তাফিজ। আলোকচিত্রীদের ডাকে সাড়া দিয়ে মৃদু হেসেছেন। কিন্তু সেই হাসিতে ছিল না কোনো প্রাণ। স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছিল, নিজেদের পারফরম্যান্সে নিজেরাই হতাশ তারা। দল থেকে বাদ দেওয়াকে সমাধান মনে করছেন না মাশরাফি। বরং সেরা ও পরীক্ষিত পারফরমারদের ঘঁষেমেজে ঠিক করার পক্ষে নড়াইল এক্সপ্রেস। আপাতত খেলার বাইরে থাকবেন ক্রিকেটাররা। দীর্ঘ বিরতি পাচ্ছেন। এ বিরতিতে নতুন করে জেগে ওঠার প্রেরণা পাবেন তো সৌম্য, সাব্বির, মুস্তাফিজরা?