ড্রোন তৈরি করল ইয়েমেন, যুদ্ধের মোড় ঘুরে যেতে পারে

ইয়েমেনের সামরিক বাহিনী অভ্যন্তরীণভাবে চার রকমের ড্রোন তৈরি করেছে। এসব ড্রোন পলাতক প্রেসিডেন্ট আব্দ রাব্বু মানসুর হাদির অনুগত গেরিলা ও সৌদি সেনাদের তৎপরতা সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ এবং তাদের ওপর হামলা চালাতে পারবে।

এর মধ্যে যুদ্ধের জন্য ব্যবহার উপযোগী ড্রোনের ডাক নাম দেয়া হয়েছে কাসেফ-১ বা হামলাকারী-১। এ ড্রোনের একটি ডানার দৈর্ঘ্য হচ্ছে তিন মিটার এবং দেহের দৈর্ঘ্য আড়াই মিটার। ড্রোনটি একটানা দুই ঘণ্টা উড়তে পারবে এবং ৩০ কেজি ওজন বহন করতে পারে।

অন্য একটি ড্রোনের নাম দেয়া হয়েছে হুদহুদ-১। এটা একটানা দেড় ঘণ্টা উড়তে পারে এবং ৩০ কিলোমিটারের মধ্যে অভিযান চালাতে পারে। হুদহুদ ড্রোনের ডানার দৈর্ঘ্য ১.৯ মিটার এবং এর দেহের দৈর্ঘ্য দেড় মিটার। অন্য দুটি ড্রোনের নাম হচ্ছে রাকিব বা প্রতিদ্বন্দ্বী এবং রাশেদ বা তথ্য সংগ্রহকারী। রাশেদ ড্রোন দুই ঘণ্টা উড়তে পারে এবং ৩৫ কেজি ওজন বহন করতে পারে। এ ড্রোন আকাশ থেকে যুদ্ধক্ষেত্রের পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের পাশাপাশি তথ্য সংগ্রহ করতে পারে। আর রাকিব ড্রোন উড়তে পারে দেড় ঘণ্টা। এসব ড্রোন তৈরির ফলে সৌদি আরবের সঙ্গে ইয়েমেনের যোদ্ধাদের চলমান যুদ্ধের মোড় ঘুরে যেতে পারে।

এর আগে, গত মাসে ইয়েমেনের সামরিক বাহিনী দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র উদ্বোধন করেছে। এরইমধ্যে এ ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে সৌদি আরবের অনেক গভীরে হামলা চালিয়েছে ইয়েমেনের সেনারা।

You Might Also Like