ডুপ্লিকেট ফাইল ডিলিট করে স্টোরেজ বাড়াবেন যেভাবে

আজকাল আমরা যারা স্মার্ট ডিভাইস অর্থাৎ স্মার্টফোন, কম্পিউটার ইত্যাদি ব্যবহার করছি তাদের কাছে সবচেয়ে বড় সীমাবদ্ধতা হচ্ছে, এসব ডিভাইস স্টোরেজ। নানান প্রযুক্তিগত জটিলতার কারণে আমরা আমাদের ডিভাইসগুলোতে ইচ্ছামতো স্টোরেজ ব্যবহার করতে পারি না।

প্রত্যেকটি ডিভাইসেই একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ স্টোরেজ থাকে ডেটা স্টোর করার জন্য। এই নির্দিষ্ট পরিমাণ স্টোরেজ ভর্তি হয়ে গেলেই বিপত্তি। হয় আপনাকে অতিরিক্ত হার্ড ডিস্ক বা মেমোরি কার্ড কিনে স্টোরেজ বাড়াতে হবে অথবা বিভিন্ন অনলাইন স্টোরেজে ডেটা রাখতে হবে। এখানেও আবার আছে বাধ্যবাধকতা। অল্প খানিকটা স্টোরেজ তারা আপনাকে ফ্রি-তে ব্যবহার করতে দিবে। এরপর তাদেরকে মাসিক বা বাৎসরিক একটা চার্জ দিতে হবে অতিরিক্ত স্টোরেজের জন্য।

বুঝতেই তো পারছেন, আপনার ডিভাইসের স্টোরেজ আপনার জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ। তাই এসব ঝামেলা এড়াতে আমরা যদি আমাদের ডিভাইসের নির্ধারিত স্টোরেজটাকেই একটু বুঝেশুনে কাজে লাগাই তাহলে এত দ্রুত স্টোরেজ ফুল হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা অনেকাংশে কম। যেমন: ডুপ্লিকেট ফাইল ডিলিট করে স্টোরেজ বাড়াতে পারেন।

ডুপ্লিকেট ফাইল অর্থাৎ একই ফাইলের কপি ভিন্ন ফোল্ডার অথবা ড্রাইভে থাকলে ডিভাইসের মূল্যবান স্টোরেজ যেমন নষ্ট হয়, তেমনি অনেক সময় কম্পিউটার ধীর গতিরও হয়ে যায়। সুতরাং আপনার উইন্ডোজ চালিত কম্পিউটার থেকে ডুপ্লিকেট ফাইল বা ডেটাগুলো ডিলিট করে স্টোরেজ ফাঁকা করার উপায় জানাতেই এ প্রতিবেদন।

উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ডুপ্লিকেট ফাইল খুঁজে বের করার কোনো ব্যবস্থা রাখেনি মাইক্রোসফট। তাই ডুপ্লিকেট ফাইল খুঁজে বের করে তা ডিলিট করার জন্য আপনাকে থার্ড পার্টি অ্যাপ্লিকেশন বা সফটওয়্যারের সাহায্য নিতে হবে। তবে এক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই ভাইরাসযুক্ত অ্যাপ্লিকেশন এবং সফটওয়্যার থেকে সাবধান থাকতে হবে। কারণ এসব ঝুঁকিপূর্ণ অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করলে আপনার হ্যাকারের কবলে পরার সম্ভাবনা ৯৯.৯৯ শতাংশ।

আজ আপনাদের এমন কয়েকটি টুলস সম্পর্কে আলোচনা করবো যেগুলো ব্যবহার করে আপনি খুব সহজেই ডুপ্লিকেট ফাইল বা ডেটা ডিলিট করে স্টোরেজ বাড়াতে পারবেন। উল্লেখ্য যে, অনলাইনে নিরাপদ সফটওয়্যার বা অ্যাপ্লিকেশন খুঁজে পাওয়ার সবচেয়ে ভালো উপায় হলো- অফিসিয়াল সাইট থেকে ডাউনলোড করা। এ প্রতিবেদনে অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের লিংক যুক্ত করা হয়েছে।

ডুপ্লিকেট ক্লিনার: এই টুলসটির খুবই সাধারণ ইউজার ইন্টারফেস থাকায় যে কেউ-ই খুব সহজেই ডুপ্লিকেট ফাইল খুঁজে বের করতে এবং ডিলিট করতে পারবেন। এর মাধ্যমে নির্দিষ্ট কোনো ফোল্ডার বা ড্রাইভের ডুপ্লিকেট ফাইলও ডিলিট করা যাবে। অ্যাডভান্সড ইউজাররা এর ‘হার্ড লিঙ্কিং’ ফিচার ব্যবহার করে কাস্টমাইজড সুবিধা পাবেন। ডাউনলোড লিংক: https://bit.ly/3cXL7cf।

ডুপগুরু: আপনার কম্পিউটারের যেকোনো ফাইলের নাম বা কনটেন্টের ধরন অনুযায়ী ডুপ্লিকেট ফাইলটি খুঁজে বের করতে পারে ডুপগুরু। ‘ফাজি অ্যালগরিদম’ ব্যবহার করায় আপনি যদি ফাইলের নাম পরিবর্তন করে ফেলেন এরপরেও ডুপগুরু ঠিকই ডুপ্লিকেট ফাইলটিকে খুঁজে বের করে ফেলতে পারবে। ডাউনলোড লিংক: https://bit.ly/2U2M2iU।

* ডুপ্লিকেট ফাইল ফাইন্ডার: লাইটওয়েট এই টুলটিও ডুপ্লিকেট ফাইল খুঁজে ডিলিট করার জন্য খুবই কার্যকরী। যদিও এই টুলটি অনেক পুরাতন, তবে এর কম্পিটিবল নতুন ভার্সনও রিলিজ হচ্ছে নিয়মিত। ডাউনলোড লিংক: https://bit.ly/39RCDS7।

এগুলো ছাড়াও অনলাইনে আরো অনেক টুলস আছে যেগুলোর মাধ্যমে কম্পিউটারের সব ডুপ্লিকেট ফাইল খুঁজে বের করে ডিলিট করে স্টোরেজ খালি করে নিতে পারবেন। কিন্তু উপরোক্ত ৩টি টুলস নিরাপদ হিসেবে বেশ জনপ্রিয়।

You Might Also Like