ট্রাম্পের নতুন নিরাপত্তা নীতি অবশ্যই আক্রমণাত্মক: পুতিন

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সম্প্রতি যে নতুন জাতীয় নিরাপত্তা নীতি ঘোষণা করেছেন তা আক্রমণাত্মক ও আগ্রাসীমূলক। এ নীতির সমালোচনা করে পুতিন বলেন, মস্কো সময়মতোই এ বিষয়ে নিজের অবস্থান গ্রহণ করবে।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে শুক্রবার এক বৈঠকে পুতিন এসব কথা বলেছেন। তিনি বলেন, “আমাদের উচিত ‘ফার্স্ট আমেরিকা’ নীতিকে বিবেচনায় নেয়া।” তিনি আরো বলেন, সম্ভাব্য যেকোনো হুমকির বিষয়ে প্রতিক্রিয়া ও সময়মতো অবস্থান গ্রহণের সার্বভৌম অধিকার আছে রাশিয়ার।
প্রেসিডেন্ট পুতিন বলেন, ইউরোপের দেশ পোল্যান্ড ও রোমানিয়ায় আমেরিকা যে পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করেছে তা মূলত রাশিয়ায় হামলা চালানোর জন্য এবং এর মাধ্যমে ওয়াশিংটন ঐতিহাসিক ইন্টারমিডিয়েট নিউক্লিয়াস ফোর্সেস বা আইএনএফ চুক্তি লঙ্ঘন করেছে। ১৯৮৭ সালে আমেরিকা ও রাশিয়ার মধ্যে এ চুক্তি সই হয়। এ চুক্তির ফলে দু দেশের স্বল্প ও মাঝারি পাল্লার পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংস করা হয় এবং বাস্তবিকভাবে স্নায়ুযুদ্ধের অবসান ঘটে।

গত ১৮ ডিসেম্বর প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ‘আমেরিকা ফার্স্ট’ নামে নতুন জাতীয় নিরাপত্তা নীতি ঘোষণা করেন। এতে তিনি বলেছেন, চীন ও রাশিয়া দিন দিন আমেরিকার স্বার্থের জন্য হুমকি হয়ে উঠছে। নতুন নীতিতে তিনি বলেছেন, মার্কিন স্বার্থ রক্ষার জন্য প্রয়োজনে তিনি পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার করবেন।

You Might Also Like