ট্রাম্পের ওপর ক্ষেপেছে মিত্ররা

যুক্তরাষ্ট্রে ইস্পাত ও অ্যালুমিনিয়াম আমদানির ওপর শুল্ক আরোপ করার ট্রাম্পের সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ হয়েছে কানাডা ও ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ (ইইউ) মিত্র দেশগুলো। যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে তারা পাল্টা ব্যবস্থা নেওয়ার হুমকি দিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে ইস্পাত রপ্তানিকারক শীর্ষ দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে কানাডা, মেক্সিকো, চীন, ব্রাজিল ও ইইউভুক্ত কয়েকটি দেশ। বৃহস্পতিবার ট্রাম্প এক টুইটার বার্তায় জানিয়েছেন, ‘অন্যায্য বাণিজ্য ও বাজে নীতির কারণে’ যুক্তরাষ্ট্র ধ্বংস হচ্ছে। এখন থেকে ইস্পাত আমদানিতে ২৫ শতাংশ ও অ্যালুমিনিয়ামে ১০ শতাংশ শুল্ক আরোপ করা হবে।

সমালোচকরা অবশ্য দাবি করেছেন, ট্রাম্পের এই সিদ্ধান্তে আদতে মার্কিনিদের চাকরি সুরক্ষা হবে না এবং শেষ পর্যন্ত ভোক্তাদেরকেই অতিরিক্ত দাম বহন করতে হবে।

ইউরোপিয়ান কমিশনের প্রেসিডেন্ট জিন ক্লড জাংকার অভিযোগ করেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের এই শুল্কারোপের কারণে হাজার হাজার ইউরোপীয় চাকরি ঝুঁকিতে পড়বে।

তিনি বলেছেন, ‘আমাদের শিল্প অন্যায্য পদক্ষেপের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ হলে আমরা অলস হয়ে বসে থাকব না। আমাদের স্বার্থ রক্ষায় ইইউ কঠোর ও পাল্টা ব্যবস্থা নেবে।’

যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় ইস্পাত ও অ্যালুমিনিয়াম সরবরাহকারী দেশ হচ্ছে কানাডা। দেশটির বাণিজ্যমন্ত্রী বলেছেন, এই শুল্কারোপ হবে ‘অগ্রহণযোগ্য’।

দেশটির বাণিজ্যমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড বলেছেন, বিধিনিষেধ আরোপ করা হলে কানাডার পাল্টা ব্যবস্থা নেবে। তবে তিনি এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি।

আরেক শীর্ষ রপ্তানিকারক দেশ ব্রাজিল বলেছে, তারা স্বার্থরক্ষায় বহুপক্ষীয় বা দ্বিপক্ষীয় ব্যবস্থা নেবে।

জার্মানির ইস্পাত শিল্প ফেডারেশন ডব্লিউভি স্টাহল দাবি করেছে, যুক্তরাষ্ট্রের এই পদক্ষেপ বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার নিয়মের লঙ্ঘন এবং জার্মানির ইস্পাত বাজারে এর প্রভাব ফেলবে।

You Might Also Like