টোকিওর প্রথম নারী গভর্নর হলেন ইউরিকো কইকে

জাপানের রাজধানী টোকিওর প্রথম নারী গভর্নর নির্বাচিত হয়েছেন ইউরিকো কইকে। রোববার (৩১ জুলাই) নির্বাচনে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়ে বিপুল ভোটের ব্যবধানে এগিয়ে থেকে এ পদে নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

ভোটগ্রহণের পর এ ফলাফল পাওয়া যায়। নির্বাচন কমিশনের বরাত দিয়ে সোমবার (১ আগস্ট) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম এ খবর দিয়েছে।

নির্বাচিত ইউরিকো জাপান সরকারের সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী। লড়াইয়ে তার প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন আরেক সাবেক মন্ত্রী হিরয়া মাসুদা ও সাংবাদিক শুনতারো তরিগোয়ে।

ভোটের ফলাফলে দেখা যায়, ইউরিকোর ঝুলিতে গেছে ২৯ লাখ ভোট। আর হিরয়া পেয়েছেন ১৮ লাখ ভোট এবং তরিগোয়ে পেয়েছেন ১৩ লাখ ভোট।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, জনগণের ভোটে এই নিরঙ্কুশ জয় পাওয়া ইউরিকোর অন্যতম প্রধান চ্যালেঞ্জ হবে ২০২০ সালের অলিম্পিক আয়োজনকে কেন্দ্র করে যেসব অর্থনৈতিক সমস্যা রয়েছে তা মোক‍াবেলা করা। এ অলিম্পিক আয়োজনকেন্দ্রিক দুর্নীতির কারণেই আগের দুই গভর্নরকে দায়িত্ব নিয়েই অল্প সময়ের মধ্যে পদত্যাগ করতে হয়েছে।

অবশ্য সেসব সমস্যা মোকাবেলার প্রতিশ্রুতিই দিচ্ছেন ইউরিকো। জয়ের পর তিনি উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে সমর্থকদের উদ্দেশে বলেছেন, আমি এক নজিরবিহীন পন্থায় টোকিওর রাজনীতি পরিচালিত করবো। এমন টোকিও গড়ে তুলবো যা নগরবাসীকে পুলকিত করবে।

ইউরিকো প্রধানমন্ত্রী শিনঝো আবের দলের লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির নেতা। কিন্তু তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে সমর্থন জানাননি প্রধানমন্ত্রী। সে হিসেবে ইউরিকোকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবেই প্রচার করছিলো সংবাদমাধ্যম।

You Might Also Like