টাঙ্গাইলে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

টাঙ্গাইলে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূকে হত্যার দায়ে স্বামী মো. নাসির উদ্দিনকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন টাঙ্গাইল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালত। আজ মঙ্গলবার দুপুরে ট্রাইব্যুনালের বিচারক শরীফ উদ্দিন আহমেদ এই আদেশ দেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, ২০১২ সালের জুলাই মাসে টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার কাইতকাই গ্রামের মেসের আলীর ছেলে মো. নাসির উদ্দিনের সঙ্গে একই উপজেলার পোদ্দারবাড়ি গ্রামের জিয়াউল হকের মেয়ে নুরজাহানের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে স্বামী নাসির উদ্দিন নুরজাহানকে ২০ হাজার টাকা যৌতুকের জন্য চাপ দিয়ে আসছিল।

নুরজাহানের পরিবার যৌতুকের ২০ হাজার টাকা পরিশোধ করতে ব্যর্থ হওয়ায় ওই  বছরের ২ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাতে নাসির উদ্দিন তার স্ত্রী নুরজাহানকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। পরে নুরজাহানের বাবা জিয়াউল হক নাসির উদ্দিনসহ ৪ জনকে আসামি করে মধুপুর থানায় হত্যা মামলা করেন। পরে পুলিশ স্বামী নাসির উদ্দিনকে ঘটনা সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকারোক্তি ও বাকি ৩ জনকে অব্যাহতি দিয়ে অভিযোগপত্র দাখিল করে। পরে আদালত তা আমলে নিয়ে এ রায় প্রদান করেন। নাসির উদ্দিন বর্তমানে জেলহাজতে রয়েছে।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি একেএম নাসিমুল হক। আসামিপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন আব্দুর রাজ্জাক।

You Might Also Like