ঝালকাঠিতে হুজির সাত সদস্য আবারো গ্রেপ্তার

নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন হরকাতুল জেহাদের (হুজি) সাত সদস্যকে আবারও গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

জামিনে মুক্তি পেয়ে তিন দিন নিখোঁজের পরে ঝালকাঠির নলছিটি থানা পুলিশ গতকাল রোববার গভীর রাতে উপজেলার রায়াপুর এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে।

সোমবার দুপুরে তাদের ৫৪ ধারায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে ঝালকাঠির মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতে হাজির করা হয়। আদালতের বিচারক আবু শামীম আজাদ তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার মৃত আব্দুল রউফের ছেলে আবুল বাশার মৃধা, একই উপজেলার হায়দার আলী মাতুব্বরের ছেলে মিনহাজুল আবেদিন, গোপালগঞ্জের মোকছেদপুর উপজেলার মোকছেদ হাওলাদারের ছেলে কারি সিরাজুল ইসলাম, নলছিটি উপজেলার আব্দুল মান্নানের ছেলে নুরুল ইসলাম, একই উপজেলার মাওলানা মাসুম বিল্লার ছেলে বাকি বিল্লাহ, নুরুল ইসলামের ছেলে সোহাগ ও কাঁঠালিয়া উপজেলার ইউসুফ আলীর ছেলে জোবায়ের ওরফে শাহীন।

নলছিটি থানার এসআই ফিরোজ গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৩ সালের ১৪ আগস্ট নলছিটি উপজেলার কামদেবপুর গ্রামের খাদেমুল ইসলাম কওমি মাদ্রাসা সংলগ্ন মসজিদে হুজির সেকেন্ড ইন কমান্ড মশিউর রহমান ওরফে মিলন তালুকদারের নেতৃত্বে প্রশিক্ষণ চলছিল। তখন পুলিশ অভিযান চালিয়ে একটি হ্যান্ড গ্রেনেডও বেশ কয়েকটি জেহাদি বইসহ ৯ জনকে গ্রেপ্তার করে।

এ ঘটনায় নলছিটি থানার আসামিদের বিরুদ্ধে একটি সন্ত্রাস দমন আইনে, অপর দুটি অস্ত্র ও বিস্ফোরক আইনে মামলা দায়ের হয়।

সন্ত্রাস বিরোধী আইনের মামলায় গত ৫ জুন ৯ হুজি সদস্যকে চার বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। রায়ে একজনকে খালাস দেওয়া হয়। অপর আটজনকে বরিশাল কারাগারে রাখা হয়। এর মধ্য থেকে সাত জনকে গত ৭ নভেম্বর উচ্চ আদালত থেকে জামিন দেওয়া হয়।

১০ নভেম্বর সন্ধ্যায় বরিশাল কারাগার থেকে মুক্তির পরে তারা রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হন। এ ঘটনায় স্বজনরা নিখোঁজদের সন্ধানে গত রোববার বরিশাল প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন। ওই দিন রাতেই তাদের নলছিটির রায়াপুর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

You Might Also Like