‘জয়কে হত্যার পরিকল্পনায় শফিক রেহমানের নাম এসেছে’

যুক্তরাষ্ট্রের তদন্তে সজীব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণ ও হত্যার পরিকল্পনাকারীদের তালিকায় প্রবীণ সাংবাদিক শফিক রেহমান ও আমার দেশ-এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের নাম এসেছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একইসঙ্গে ষড়যন্ত্রকারীদের বিচার এদেশের মাটিতে হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। আজ বিকালে রাজধানীর খামারবাড়ির কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, জয়কে যুক্তরাষ্ট্রে অপহরণ ও হত্যা পরিকল্পনায় বিএনিপর লোকজন জড়িত। তাছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের তদেন্ত শফিক রেহমান এবং মাহমুদুর রমানের নাম এসেছে। তবে বিচার পাওয়ার অধিকার সবার আছে। শফিক রেহমানের গ্রেপ্তারের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, অপরাধীকে গ্রেপ্তার করলেও অপরাধ হয় এখন। যদি অপরাধীকে  গ্রেপ্তার করলেই অপরাধ হয়, তাহলে এদেশে বিচার কি করে হবে? তারা সাংবাদিক দেখলো, দেখলো না অপরাধী। ব্লগার হত্যা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, মুক্তচিন্তার নামে যদি বিকৃত মানসিকতার কথাবার্তা হয় তাহলে সেটা মুক্তচিন্তা নয়। ধর্ম নিয়ে যদি কারো অন্য ভাবনা থাকে তাহলে তার বিচার আল্লাহ করবেন। তাকে হত্যার করার অধিকার কাউকে দেয়া হয়নি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, দীর্ঘ আন্দোলন সংগ্রামের মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধু বাঙালি জাতিকে স্বাধীনতা অর্জনে ঐক্যবদ্ধ করেন। ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ তিনি ঐতিহাসিক ভাষণ দেন। শেখ হাসিনা বলেন, বঙ্গবন্ধু গ্রেপ্তার হলেও তার ভাষণের ওপর ভিত্তি করে এবং তার নির্দেশনা মতো এপ্রিলের ১০ তারিখে মুজিবনগর সরকার গঠিত হয়। এরপর ১৭ই এপ্রিল সে সরকার শপথ নেয়। এই সরকার গঠনের মধ্য দিয়েই বিশ্বে স্বাধীন জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করে বাঙালি।

-মানবজমিন

You Might Also Like