জিয়ানগরে ইন্দুরকানী থানার ওসি প্রত্যাহার

পিরোজপুর জেলার জিয়ানগর উপজেলার ইন্দুরকানী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মিজানুল হককে প্রত্যাহার (ক্লোজ) করা হয়েছে।

সোমবার তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন পুলিশ সুপার মো. ওয়ালিদ হোসেন ।

গত ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত কুচকাওয়াজে অভিবাদন গ্রহণ এবং মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে সম্মাননা ও পুরস্কার তুলে দেন মানবতাবিরোধী অপরাধে আমৃত্যু সাজাপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর ছেলে জিয়ানগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুদ সাঈদী।

এ সময় কুচকাওয়াজ মঞ্চে উপজেলা চেয়ারম্যান মাসুদ সাঈদীর পাশেই দাঁড়িয়ে ছিলেন ইন্দুরকানী থানার ওসি মো. মিজানুল হক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জাকির হোসেন এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মতিউর রহমান ।

এ ছবি মাসুদ সাঈদী তার ফেসবুক আইডির টাইম লাইনে পোস্ট দিয়ে মন্তব্য করেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এ ছবি ও মন্তব্য নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা ও নিন্দা-প্রতিবাদের ঝড় ওঠে।

বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে যুদ্ধাপরাধীর ছেলের অতিথি হওয়া ও মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়াকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্তিযুদ্ধকে অপমান বলে আখ্যায়িত করেছেন স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

এ ঘটনার দুদিন পর সোমবার দুপুরে ওসি মো. মিজানুল হককে প্রত্যাহার করা হয়।

তবে পিরোজপুরের পুলিশ সুপার মো. ওয়ালিদ হোসেন বলেছেন, প্রশাসনিক কারণে তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

You Might Also Like