জার্মানিতে রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়েছেন ৩ তুর্কি কূটনীতিক: গণমাধ্যম

তুরস্কের তিন কূটনীতিক জার্মানির কাছে রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়েছেন বলে জার্মান গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবর থেকে জানা গেছে। গত ১৫ জুলাই’র ব্যর্থ সামরিক অভ্যুত্থানে জড়িত সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আঙ্কারা যখন কঠোর ব্যবস্থা নিচ্ছে তখন এ খবর প্রকাশিত হলো।

জার্মানির সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে দেশটির দৈনিক ‘সুয়েদ্দেয়ুতশে জেইতুং’ এবং রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত চ্যানেল এনডিআর ও ডাব্লিউডিআর জানিয়েছে, আশ্রয় চাওয়া কূটনীতিকদের মধ্যে একজন সামরিক অ্যাটাশে রয়েছেন।

জুলাই মাসের রক্তক্ষয়ী অভ্যুত্থান প্রচেষ্টার পর তুর্কি সরকার অজ্ঞাত সংখ্যক কূটনীতিকের পাসপোর্ট প্রত্যাহার করে নিয়েছে।

জার্মান পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষকে সেদেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা জানিয়েছেন, দেশটিতে অবস্থানরত তিন তুর্কি কূটনীতিক বার্লিনের কাছে রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়েছে। রাজনৈতিক আশ্রয় চাওয়া কূটনীতিকদের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে জার্মান দৈনিকটি জানিয়েছে। এটি বলেছে, তবে যারা এরইমধ্যে আশ্রয় চেয়েছেন তাদের ব্যাপারে এখনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি।
তুর্কি সরকার অভিযোগ করছে, যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত বিরোধী নেতা ফতেউল্লাহ গুলেন ১৫ জুলাই’র ব্যর্থ সামরিক অভ্যুত্থানের কলকাঠি নেড়েছেন। এ কারণে তার সঙ্গে যোগসাশজ থাকতে পারে এমন সব কূটনীতিককে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিচ্ছে আঙ্কারা। অবশ্য গুলেন ওই অভ্যুত্থান প্রচেষ্টার নিন্দা জানানোর পাশাপাশি এতে জড়িত থাকার বিষয়টি অস্বীকার করে আসছেন।

You Might Also Like