জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে হাওরে দুর্দশা : পানিসম্পদ মন্ত্রী

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে আগাম অতিবৃষ্টিতে হাওর অঞ্চলে দুর্দশার সৃষ্টি হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন পানিসম্পদ মন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ।

রোববার সচিবালয়ে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে এবার স্বাভাবিক সময়ের আগে বৃষ্টি হয়েছে এবং অতিবৃষ্টি হয়েছে। অতিবৃষ্টিতে ও বৃষ্টির কারণে সৃষ্ট পাহাড়ি ঢল নেমে পানির প্রবাহ স্বাভাবিকের চেয়ে ৮ মিটার বেশি উচ্চতায় হয়েছে। আমাদের ৫ মিটার পর্যন্ত বাঁধ দেওয়া আছে। সাধারণত এর ওপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হয় না। এবার ৮ মিটার উচ্চতায় পানি প্রবাহ হওয়ায় হাওর অঞ্চলে পানি ছড়িয়ে পড়েছে। এ ছাড়া, পানির স্রোতে কিছু কিছু বাঁধ ভেঙেও গেছে।’

এ ক্ষেত্রে পানি উন্নয়ন বোর্ডের গাফিলতি ছিল কি না, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘পানি উন্নয়ন বোর্ডের আসলে কিছু করার ছিল না। তবে আমরা খতিয়ে দেখছি, বাঁধ নির্মাণে কোনো অনিয়ম হয়েছিল কি না। যদি কোনো অনিয়মের খবর পাওয়া যায়, কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।’

বানের পানির সঙ্গে ভারতের ইউরেনিয়াম ও অন্যান্য ক্ষতিকর রাসায়নিক চলে এসে জীববৈচিত্র্যে প্রভাব ফেলছে, এ বিষয়ে ভারতীয় কিছু সংবাদমাধ্যমে প্রতিবেদনও প্রকাশ হয়েছে। সে দিক বিবেচনা করে ভারতের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে কি না, জানতে চাইলে আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, ‘ভারতের বিরুদ্ধে এ মুহূর্তে ব্যবস্থা নেওয়ার কিছু নেই। বানের পানিতে ইউরেনিয়াম ও অন্যান্য রাসায়নিক আছে কি না, তা পরীক্ষা করে দেখতে কাজ করছে আমাদের পরমাণু শক্তি কমিশনের একটি দল। তাদের প্রতিবেদন হাতে পেলে এ ব্যাপারে কিছু বলা যাবে।’

You Might Also Like