হোম » ছাগলের খবর শেয়ার করে ৫৭ ধারায় সাংবাদিক গ্রেপ্তার!

ছাগলের খবর শেয়ার করে ৫৭ ধারায় সাংবাদিক গ্রেপ্তার!

admin- Tuesday, August 1st, 2017

শায়লা রুখসানা : বাংলাদেশের খুলনা জেলার স্থানীয় দৈনিক প্রবাহ পত্রিকার সাংবাদিক আব্দুল লতিফ মোড়লকে প্রতিমন্ত্রীর বিতরণ করা ছাগল মারা যাওয়া সংক্রান্ত খবর শেয়ারের কারণে ৫৭ ধারায় গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গতকাল গভীর রাতে তাকে বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানান মিস্টার মোড়লের মেয়ে মেহনাজ রেজা মিম্মা।

তিনি বিবিসি বাংলাকে টেলিফোনে বলেন, “রাত আড়াইটার দিকে আমার আব্বুকে বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যাওয়া হয়। পুলিশ ছিল, আমাদের ডুমুরিয়া থানার ওসি ছিল, আরও ২০/৩০ জনের মত মানুষ এসেছিল। দেয়াল টপকে তারা ঢোকে। তারা আমার রুমেও জোরে জোরে নক করে। আমি জানতে চাই ওনাকে কোথায় নিয়ে যাচ্ছেন। তখন আমাকে বাজে-ভাবে বলা হয় কোথায় নিয়ে যাচ্ছি সেটা আপনার মায়ের কাছ থেকে জেনে নিয়েন”।

বিকেল চারটার দিকে মেহনাজ রেজার সাথে যখন কথা হচ্ছিল তিনি তখন আদালত এলাকায়।

তিনি আরও বলেন, “আমাদের প্রতিমন্ত্রী মৎস্য ও পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী ছাগল বিতরণ করেছেন সেই ছাগল ২৪ ঘণ্টার মধ্যে মারা গেছে। সকালে ছাগল বিতরণ করছে, রাতেই মারা গেছে। আব্বু সেই খবরের লিংকটা শুধু শেয়ার করছে। এজন্য আমার বাবাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আমি শুধু এটুকুই জানি”।

অনার্স চূড়ান্ত বর্ষের শিক্ষার্থী মিজ রেজা জানান, তারা এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।

“আমার বাবা বলতো আমি যেহেতু সাংবাদিক আমার অনেক ধরনের বিপদ আসতে পারে। আমরা এখন নিরাপত্তা হীনতায় আছি”।

এই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মো: আব্দুল খালেক বিবিসি বাংলাকে বলেছেন, “প্রতিমন্ত্রী মহোদয়ের পক্ষে স্পন্দন নামে আরেকটি পত্রিকার সাংবাদিক সুব্রত রায় বাদী হয়ে তথ্য – প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় মামলা করেছেন”।

এই পুলিশ ইন্সপেক্টর আরও বলেন “সাংবাদিক লতিফের মোবাইল আইডি থেকে প্রতিমন্ত্রী মহোদয়ের ছবি আপলোড করে তার সুনাম ক্ষুণ্ণ করা হয়েছে। প্রতিমন্ত্রী মহোদয় দুদিন আগে ছাগল বিতরণ করেছেন সেই ছাগল মারা গেছে। তার অভিযোগ একটি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে আমি ছাগল বিলি করছি। আমি নিজে তো বিলি করিনি। কিন্তু আমার সুনাম কেন ক্ষুণ্ণ করলো কেন?”

স্থানীয় অন্যান্য সাংবাদিক ও পুলিশের কাছ থেকে জানা গেছে, গত ২৯শে জুলাই ডুমুরিয়ায় কিছু লোককে হাঁস, মুরগি ও ছাগল বিতরণ করা হয়। এরমধ্যে একজন ব্যক্তির ছাগল ওইদিন রাতেই মারা যায় বলে বিভিন্ন পত্রিকায় খবর প্রচার হয়।

সেই খবর আব্দুল লতিফ ফেসবুকে শেয়ার করেছেন এই অভিযোগে লতিফের বিরুদ্ধে ৫৭ ধারায় মামলা করা হয়।

পুলিশ বলছে এখন বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তবে মিস্টার লতিফের ফেসবুক পাতায় গিয়ে ছাগল সংক্রান্ত কোন পোস্ট দেখা যায়নি।

সূত্র: বিবিসি বাংলা, ঢাকা

সর্বশেষ সংবাদ