চিকিৎসককে হত্যার পর রোগীর আত্মহত্যা

জার্মানির বার্লিনের একটি হাসপাতালে চিকিৎসককে গুলি করে হত্যার পর আত্মহত্যা করেছে রোগী। মঙ্গলবার বার্লিনের দক্ষিণ-পশ্চিমের জেলা স্টেগলিৎজের চ্যারিটি ইউনিভার্সিটি হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটেছে।

৭২ বছর বয়স্ক ওই রোগী হাসপাতালের চোয়াল ও মুখ সার্জারি বিভাগে চিকিৎসা নিতে এসেছিলেন।

বার্লিন পুলিশের মুখপাত্র উইনফ্রিদ ওয়েনজেল জানিয়েছেন, হাসপাতালের চোয়াল ও মুখ সার্জারি বিভাগের বহির্বিভাগে রোগীদের চিকিৎসা পরামর্শ দিচ্ছিলেন ওই চিকিৎসক। একপর্যায়ে ওই রোগী চিকিৎসকের কক্ষে প্রবেশ করে এবং আলোচনা চলাকালে সে চিকিৎসককে লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলি ছোড়ে। পরে ওই হামলাকারী একই পিস্তল দিয়ে আত্মহত্যা করে।

পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান, হামলাকারী সম্পর্কে এখনো বিশদ তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে এ ঘটনার সঙ্গে জঙ্গি সম্পৃক্ততা নেই বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

প্রসঙ্গত, গত ১৮ জুলাই থেকে চলতি সপ্তাহের প্রথম নাগাদ জার্মানিতে জঙ্গিসহ চারটি হামলার ঘটনা ঘটেছে। এগুলোর মধ্যে গত শুক্রবার জার্মান-ইরান বংশোদ্ভূত এক তরুণের গুলিতে নয়জন নিহত হয়েছে।

You Might Also Like