চায় মন

ফারজানা ফারজু

কখনো এক মনে মন চায় …
শুক পাখীর রূপালী ডানায়
সোনালী পারদ সাজিয়ে মনটাকে
উড়িয়ে দেই।

উড়ে যাকনা সে
শালবনে, মধুবনে, অন্যবনে।
কখনো এই খেয়ালী মন চায় …

অনন্ত আকাশের নীচে দাঁড়িয়ে
বৃষ্টির কলতানে মিলেমিশে
বাজাই অতল তালের বাঁশী।

হয়ে যাই এক সুরঞ্জনা।
কখনো মনের দুয়ার খুলে
অচীনপুরে খুঁজি এক নাম না জানা
অচীন পাখী,
অজানা তাঁর দেশ
না জানা তাঁর সুর।
তাঁর সাথে
কথা কই … কই কথা।

মনের ডালায় সাজাই
কথার মালা,
কথার ডালি।
এই মন আমার
সেই মন হারিয়ে যায় সুদূর অজানায়।

মন জানেনা, মন বুঝেনা।
কি চায় এই উথাল পাথাল মন?
ছন্নছাড়া, বাঁধনহারা, শিকলকাটা,
উড়নচণ্ডী মন আমার।

উড়ে বেড়ায়, ঘুরে বেড়ায়,
অজানা এক তেপান্তরে
কল্পনার সেই বসত ঘরে।

স্বপ্নের কোন যাদুঘরে…
মন আমার বারে বারে…।
অকারণে, বেণুবনে!
ক্ষণে ক্ষণে…!
-নিউ ইয়র্ক

You Might Also Like