চায়ের কাপ ভাঙায় পুরুষাঙ্গ কেটে খুন!

পশ্চিমবঙ্গে সামান্য ঘটনায় নৃশংসভাবে খুন হতে হয়েছে চায়ের দোকানের এক খদ্দেরকে। তাকে মারধর করে পুরুষাঙ্গ কেটে খুন করা হয়।

দোকানে চা খেতে গিয়ে হাত থেকে পড়ে চায়ের কাপ ভেঙে যাওয়ায় এই অমানবিক কান্ড ঘটানো হয়। অপরাধ। যে অপরাধে পুরুষাঙ্গ কেটে খুন করা হল যুবককে। এ ব্যাপারে দোকানদার সহ সাত জনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হয়েছে। খবর জিনিউজের।

বর্বর এই ঘটনাটি ঘটেছে মালদার বৈষ্ণবনগরে। অসাবধানে হাত থেকে পড়ে চায়ের কাপ ভাঙার মূল্য চোকাতে হয়েছে জীবন দিয়ে।

পাড়ার সফিকুল শেখের দোকানে চা খেতে যাওয়া ওই হতভাগ্য যুবকের নাম মসু শেখ। অসাবধানে তার হাত থেকে চায়ের কাপটি পড়ে ভেঙে যাওয়ার পরই তাকে মারধর শুরু করে দোকানদার। সঙ্গে আরও লোকজন নিয়ে চলে বেদম প্রহার। এ সময় কেটে দেওয়া হয় ওর পুরুষাঙ্গও।

পরিবারের দাবি, প্রচন্ড রক্তক্ষরণে ক্রমশ অবস্থার অবনতি হতে থাকে ওই যুবকের। মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যু হয় তার।

সামান্য একটি কাপ ভাঙার ঘটনায় এমন নৃশংস খুনের কান্ডে মানুষ হতবাক! এমনও নয় যে আগের কোনও শত্রুতা ছিল। পরিবার-প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, চেনাজানা পর্যন্ত ছিল না। নিছক রাগের মাথায়ই ঘটানো হয়েছে এমন অকান্ড।

You Might Also Like