হোম » চার্জারবিহীন মোবাইল উদ্ভাবন

চার্জারবিহীন মোবাইল উদ্ভাবন

ঢাকা অফিস- Friday, July 7th, 2017

চার্জার বা ব্যাটারি ছাড়া মোবাইল ফোন চলবে না- এই ধারণায় ইতি পড়ে গেল। উদ্ভাবন হয়েছে এমন এক ধরনের মোবাইল, যা ব্যাটারি বা বৈদ্যুতিক চার্জ ছাড়াই কাজ করতে সক্ষম।

ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক দীর্ঘদিন ধরে চেষ্টার পর তৈরি করেছেন ব্যাটারিবিহীন মোবাইল ফোন। ব্যাটারি ছাড়া কেমন করে মোবাইল চলবে, কীভাবে এটি উদ্ভাবন করা হলো, তা নিয়ে একটি গবেষণাপত্র প্রকাশ করেছেন তারা। ‘প্রসিডিংস অব দ্য অ্যাসোসিয়েশন ফর কম্পিউটিং মেশিনারি অন ইন্টার-অ্যাক্টিভ, মোবাইল, ওয়্যারেবল অ্যান্ড ইউবিকুইটাস টেকনোলজি’ নামে জার্নালে ১ জুলাই গবেষণাপত্রটি প্রকাশিত হয়েছে।

গবেষণাপত্রে বলা হয়েছে, ব্যাটারি ছাড়া মোবাইল কাজ করবে আশপাশের আলোকতরঙ্গ বা রেডিও সিগন্যালের সাহায্যে। বৈদ্যুতিক চার্জের প্রয়োজন হবে না।

একটি নমুনা (প্রোটোটাইপ) মোবাইল ফোন তৈরি করেছেন ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা। নমুনা ফোনটি মাত্র তিন মাইক্রোওয়াট বিদ্যুৎ পেলেই কাজ করবে। ফলে এ জন্য চার্জারের প্রয়োজন হবে না। অ্যাম্বিয়েন্ট রেডিও সিগন্যাল বা আলোকতরঙ্গ থেকে এ পরিমাণ বিদ্যুৎ টানতে সক্ষম ব্যাটারিবিহীন এই মোবাইলটি।

ভারতীয় বংশোদ্ভূত বিজ্ঞানী ও গবেষকদলের সদস্য শ্যাম গোল্লাকোটা বলেছেন, ‘প্রথমবারের মতো আমরা এমন একটি মোবাইল উদ্ভাবন করেছি, যা প্রায় জিরো পাওয়ার ব্যবহার করবে।’ তিনি আরো জানান, স্কাইপ-এর সাহায্যে এই মোবাইলে কল রিসিভ ও কথোপকথন করা যাবে।

যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল সায়েন্স ফাউন্ডেশন ও গুগল ফ্যাকাল্টি রিসার্চ অ্যাওয়ার্ডসের অর্থায়নে ব্যাটারিবিহীন মোবাইল ফোন উদ্ভাবনের গবেষণা পরিচালিত হয়েছে। এ-সংক্রান্ত গবেষণাপত্রে বলা হয়েছে, রেডিও সিগন্যাল থেকে শক্তি সঞ্চয় করে মোবাইলের বেস স্টেশন থেকে ৩১ ফুট দূরত্ব পর্যন্ত কথোপকথন করা যাবে। তবে আলোকতরঙ্গের সাহায্যে মোবাইলটি চললে, তা বেস স্টেশনের ৫০ ফুট দূরত্ব পর্যন্ত কাজ করবে।