চমেকের প্রভাষককে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের প্রভাষক ডা.তারেক শামসকে (৩৬) নিজ বাসায় কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে অজ্ঞাতপরিচয় দুর্বৃত্তরা। কি কারণে এই ঘটনা ঘটেছে তা নিশ্চিত করে বলতে পারছে না পুলিশ।

সোমবার ভোরে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।

তারেক শামস খ্যাতিমান চিকিৎসক শামসুল আলম এবং আগ্রাবাদ মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ লেখিকা আনোয়ারা আলমের ছেলে। তাদের বাসা নগরীর হালিশহর থানার রঙ্গিপাড়া এলাকায়। নগরীর বেসরকারি ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার সিএসসিআর-এ তারেক শামসের ব্যক্তিগত চেম্বার।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (পশ্চিম) আরেফিন জুয়েল বলেন, ডা.তারেক শামস নিজ বাসার নিচতলায় শয়নকক্ষে ঘুমিয়ে ছিলেন। বাসায় স্ত্রী ছিলেন না। দোতলায় ছিলেন বাবা-মা।

ভোর ৫টার দিকে শয়নকক্ষের দরজায় টোকা শুনে তারেক ঘুম থেকে উঠেন। দরজা খুলে বেরিয়ে আসার পর তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে চলে যায় দুর্বৃত্তরা। এসময় এলাকার লোকজন এসে তাকে দ্রুত চমেক হাসপাতালে নিয়ে যায়। বর্তমানে তার অবস্থা আশঙ্কামুক্ত বলে চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে জানিয়েছেন আরেফিন জুয়েল।

তিনি জানান, বাসায় ডাকাতির কোন ঘটনা ঘটেনি। কোন মালামাল খোয়া যায়নি। পেশাগত কিংবা পারিবারিক কোন বিরোধ থেকে এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে পুলিশ ধারণা করছে।

‘চুরি-ডাকাতির উদ্দেশ্য থাকলে সেটাই করত। কিন্তু চিকিৎসককে টার্গেট করে তাকে কোপানো হয়েছে। শত্রুতার জেরে তাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে বলে ধারণা করছি।

You Might Also Like