চট্টগ্রামে মা-মেয়েকে ধর্ষণ!

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় গৃহকর্তা ও তাঁর মেয়ে জামাইকে বেঁধে রেখে স্ত্রী ও মেয়েকে ধর্ষণ করেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে। গতকাল রবিবার মিরসরাইয়ে এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ দুটি ঘটনায় দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।

সাতকানিয়া উপজেলার কেঁওচিয়া গ্রামের তেমুহানী এলাকায় ভয়ংকর ওই নির্যাতনের শিকার পরিবারটি কক্সবাজারের টেকনাফ এলাকার নন্দিনীপাড়ার বাসিন্দা। পরিবারটি দুই বছর ধরে কেঁওচিয়া গ্রামের একটি বাড়িতে বসবাস করছে।

জানা গেছে, শনিবার রাত ১২টার দিকে দুর্বৃত্তরা দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে গৃহকর্তা ও তাঁর মেয়ে জামাইকে গাছের সঙ্গে বেঁধে পিটিয়ে জখম করে। ওই সময় তারা গৃহবধূ ও তাঁর মেয়েকে নির্যাতন করে। এ ঘটনায় কোরবান আলী (২৭) নামের অভিযুক্ত একজনকে গ্রেপ্তার করেছে সাতকানিয়া থানা পুলিশ।

সাতকানিয়া থানার ওসি মোহাম্মদ খালেদ হোসেন জানান, সোমবার দুই নারীর মেডিক্যাল পরীক্ষা হবে। এ ছাড়া জবানবন্দি দেওয়ার জন্য তাঁদের আদালতে হাজির করা হবে।

মিরসরাই প্রতিনিধি জানান, গতকাল উপজেলার করেরহাট ইউনিয়নের চত্তরুয়া গ্রামে ধর্ষণের শিকার হয় আট বছর বয়সের এক শিশু। নির্যাতিত ওই শিশুকে মুমূর্ষু অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মিরসরাইয়ের জোরারগঞ্জ থানার ওসি লিয়াকত আলী জানান, অভিযুক্ত আবদুল কাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ধর্ষণের ঘটনায় মামলা হয়েছে।

You Might Also Like