ঘূর্ণিঝড় আম্পানে বাংলাদেশে নারী-শিশুসহ নিহত ৭, বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন ৩৩ লাখ মানুষ

সুন্দরবনসহ বাংলাদেশের উপকূলে আছড়ে পড়া সুপার সাইক্লোন আম্পানের প্রভাবে নারী-শিশুসহ সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। পটুয়াখালীতে শিশুসহ দুজন, ভোলায় এক বৃদ্ধ, সাতক্ষীরায় এক নারী, পিরোজপুর এবং বরগুনায় অপর দুই ব্যক্তি মারা যান।

বুধবার রাত ৯টা ৮ মিনিটে ঘণ্টায় ১৪৮ কিলোমিটার বেগে সাতক্ষীরায় আঘাত হানে ঘূর্ণিঝড় আম্পান। এর আগে, সন্ধ্যা ৬টা ১০ মিনিট থেকে ঘূর্ণিঝড়টি উপকূলে আঘাত হানা শুরু করে। আম্পানের প্রভাবে দেশের বিভিন্ন স্থানে অনেক ঘর-বাড়ি ও গাছপালা ভেঙে পড়েছে। বিদ্যুতের খুঁটি উপড়ে পড়ছে। কিছু কিছু জায়গায় গাছ পড়ে সড়ক বন্ধ হয়ে গেছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কাঁচা ঘর ও বিদ্যুৎ সরবরাহের অবকাঠামো। কয়েক ফুট বেড়েছে নদনদীর পানি। অনেক স্থানে নদীর পানি প্রবল বে‌গে আছড়ে পড়ছে বে‌ড়িবাঁধের ওপর।

আবহাওয়াবিদ মো. বজলুর রশিদ রাত সাড়ে ১০টার দিকে জানান, উপকূল অতিক্রমরত ঘূর্ণিঝড় আম্ফান আরও উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে উপকূল অতিক্রম সম্পন্ন করে বর্তমানে সাতক্ষীরা জেলা ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। এটি আরও উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে বৃষ্টি ঝড়িয়ে ক্রমান্বয়ে দুর্বল হয়ে যেতে পারে বলে তিনি জানান।

নারী-শিশুসহ নিহত ৭

পটুয়াখালী : বুধবার সন্ধ্যায় পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার পানপট্টি এলাকায় ঝড়ে গাছের ডাল ভেঙ্গে পরে রাশেদ নামে ছয় বছরের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

অপরদিকে, জনসচেতনতামূলক প্রচারকাজ চালাতে গিয়ে কলাপড়ার ধানখালীর ছৈলাবুনিয়া এলাকায় খালে নৌকাডুবে শাহ আলম নামে দুর্যোগ প্রস্তুতি কর্মসূচির (সিপিপি) এক সদস্যের মৃত্যু হয়েছে।

ভোলা: আম্পানের প্রভাবে সৃষ্ট ঝড়ে ভোলার চরফ্যাশনের দক্ষিণে একটি গাছ ভেঙে চাপা পড়ে ছিদ্দিক ফকির (৭০) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (২০ মে) দুপুরে উপজেলার দক্ষিণ আইচা থানার প্রধান সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত ছিদ্দিক ফকির ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার শশীভূষণ থানার চর মানিকা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের চর কচ্ছপিয়া গ্রামের বাসিন্দা।

দক্ষিণ আইচা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন অর রশিদ জানান, সকালের দিকে ওই বৃদ্ধ বয়স্ক ভাতা আনার জন্য ভাড়া করা মোটরসাইকেলে উপজেলা সদর চরফ্যাশনের দিকে যাচ্ছিলেন। এ সময় ঝড়ে একটি গাছ ভেঙে তার ওপর পড়ে। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার চরফ্যাশন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

অপরদিকে, সদর উপজেলার ইলিশা রাজাপুর ঘাটে ট্রলার ডুবে রফিকুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এনায়েত হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

সাতক্ষীরা: ঝড়ের মধ্যে আম কুড়াতে গিয়ে গাছের ডাল ভেঙে সাতক্ষীরা শহরের সংগীতা মোড় এলাকায় করিমুন্নেসা নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত নারী শহরের কামালনগর এলাকার বাসিন্দা।

সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্তর কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান বলেন, ঝড়ের মধ্যে আম কুড়াতে গিয়ে গাছের ডাল ভেঙে পড়ে ওই নারীর মৃত্যু হয়।

পিরোজপুর: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় দেওয়া ধসে শাহজাহান মোল্যা (৬০) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। মঠবাড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মাসুদুজ্জামান ঢাকা ট্রিবিউনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বরগুনা: বরগুনা সদর উপজেলার পরীরখান বাজার এলাকায় জোয়ারের পানিতে ডুবে মো. শহীদ (৬০) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। বরগুনার জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ ঢাকা ট্রিবিউনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ঘূর্ণিঝড় আম্পানে উপকূলীয় এলাকায় প্রায় ৩৩ লাখ মানুষ বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় রাত কাটাচ্ছেন বলে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের (বিআরইবি) কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

আম্পানে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন ৩৩ লাখ মানুষ

বিআরইবি-এর চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) মইনউদ্দিন জানিয়েছেন, আম্পানের কারণে খুলনা, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পটুয়াখালী, পিরোজপুর ও লক্ষ্মীপুরের প্রায় ৩৩ লাখ পল্লী বিদ্যুতের গ্রাহক বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় আছেন। বিদ্যুৎ সংযোগ পুনঃস্থাপনের কাজ চালু থাকলেও, সাতক্ষীরা ও খুলনায় প্রচণ্ড ঝড়ের কারণে সমস্যা হচ্ছে বলেও তিনি জানান।

এ ছাড়া, বরিশাল শহরসহ বিভাগের প্রায় তিন লাখ গ্রাহক বিদ্যুতবিহীন অবস্থায় আছে বলে জানিয়েছেন পশ্চিম জোন বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানির নির্বাহী প্রকৌশলী অমূল্য কুমার সরকার।

You Might Also Like