ঘাটাইলে জনতা ব্যাংকে ডাকাতি, ৮ লাখ টাকা লুট

ঘাটাইল উপজেলার কদমতলীতে  জনতা ব্যাংক দিগড় শাখায় ডাকাতি সংগঠিত হয়েছে। ডাকাত দল ব্যাংকের ভিতর ঢুকে নৈশ প্রহরীর হাত-পা বেঁধে ভোল্টের তালা ভেঙ্গে  আট লাখ টাকা লুট করে নিয়ে গেছে বলে জানা যায়।  মঙ্গলবার ভোররাতে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায় টাঙ্গাইল ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে কদমতলী বাজারে জনতা ব্যাংক দিগড় শাখা অবস্থিত। এ শাখায় নিয়মিত ঝাড়ুদারের কাজ করেন আছিয়া খাতুন। তিনি প্রতিদিনের ন্যায় মঙ্গলবার সকাল ৮ টার দিকে ব্যাংকে ঝাড়ু দিতে গিয়ে ব্যাংকের ভিতরে ব্যাংকের নৈশ প্রহরী লুৎফর রহমানের  গোঙ্গানোর শব্দ শুনতে পান । এ সময় তিনি বাজারে গিয়ে আশে পাশের লোকজনকে ঢেকে আনেন। লোকজন এসে জানালা দিয়ে উকি দিয়ে ব্যাংকের ভিতর নৈশ প্রহরীকে হাত-পা বাধা উলঙ্গ অবস্থায় দেখতে পায় । এ সময় ব্যাংকের প্রধান ফটক বাইরে থেকে তালাবন্ধ ছিল।

পরে  ব্যাংকের ব্যবস্থাপক লোকমান হোসেন খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসলে বাইরের তালা ভেঙ্গে পুলিশ ও ব্যাংকের লোকজন ব্যাংকের ভিতরে প্রবেশ করে। এ সময় নৈশ প্রহরী লুৎফর রহমান হাত-পা বাধা অবস্থায় মেঝেতে পড়ে ছিল।

জনতা ব্যাংক দিগড় শাখার ব্যবস্থাপক লোকমান হোসেন জানান, সোমবার ব্যাংকের যাবতীয় কাজ শেষে ব্যাংকের সকল কর্মকর্তারা চলে যান। রাতের জন্য ব্যাংকের নৈশ প্রহরী মো. লুৎফর রহমান দায়িত্ব ছিল। কাজ শেষে  ব্যাংকের ভোল্টে ৮ লাখ ১৬ হাজার ৭ শত ৬৭ টাকা রেখে যাওয়া হয়।

তিনি জানান দুর্বৃত্তরা ভোল্টের তালা ভেঙ্গে ব্যাংকের ভোল্টে রক্ষিত ৮ লাখ ১৬ হাজার ৭ শত ৬৭ টাকাই নিয়ে গেছে। ঘাটাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফজলুল কবীর জানান এ ব্যাপারে ব্যাংকের ব্যবস্থাপক বাদী হয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন ঘটনাটি রহস্যাবৃত বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তবে ঘটনাটি পরিকল্পিত বলে মনে হয়।

You Might Also Like