গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই দ্বিতীয় রাউন্ডে বেলজিয়াম

টপ ফেবারিট দল হিসেবে তাদের ভাবা হচ্ছে টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই। প্রথম রাউন্ডের শেষে অন্তত সেই সুনাম অক্ষুণ্ন রাখল বেলজিয়াম। বৃহস্পতিবার গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে সাবেক চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডকে ১-০ গোলে হারিয়ে দলটি গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবেই উঠলো দ্বিতীয় রাউন্ডে।
কালিনিনগ্রাদে বেলজিয়াম ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচটি যেন নিজেদের বেঞ্চের শক্তি পরীক্ষার ভালো একটা সুযোগ হিসেবে নিয়েছে দু’দলই। ইংল্যান্ড তাদের নিয়মিত একাদেশের নয় জন খেলোয়াড়কে বিশ্রামে রেখেছে। বেলজিয়ামও দলের সেরা সেরা তারকাদের বসিয়ে রেখে একাদশ নির্বাচন করে। এ কারণে নিয়মরক্ষার এই ম্যাচে দু’দলের খেলা ছিল অনেকটাই শরীর বাঁচানোর।
যে কারণে ম্যাচের প্রথমার্ধে কেউ কারও জালে বল জড়াতে পারেনি। যেন জেতার আগ্রহও কম ছিলো দলগুলোর। তবে দ্বিতীয়ার্ধে একটি গোল করে ইংল্যান্ডকে ১-০ ব্যবধানে হারিয়েছে খর্বশক্তির দল বেলজিয়াম।
৫১ মিনিটে বেলজিয়ামের হয়ে জয়সূচক গোলটি করেন আদনান জানুজাই। তিন ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে বক্সের ডান প্রান্ত থেকে তার নেয়া বুলেট গতির এই শট জড়িয়ে যায় বাম কোন দিয়ে।
প্রথমার্ধে উভয় দলই বেশ কয়েকটি আক্রমণ করেছিলো, যদিও ফলাফল ছিলো শূন্য। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ইংল্যান্ডের আক্রমণ। ৪৮তম মিনিটেই মার্কাস রাশফোর্ডের ডান পায়ের শট মিস হয়ে যায়। এর তিন মিনিট পরই গোল করে বেলজিয়াম।
গোল করার পর বেলজিয়াম যেন আর শক্তিশালী হয়ে ওঠে। বাতসুয়াই, ফেল্লাইনি এবং জানুজাইয়ের সম্মিলিত আক্রমণ ঠেকাতেই ব্যাস্ত ইংল্যান্ডের রক্ষণ। তবে ৬৬ মিনিটে ইংল্যান্ডের মার্কাস রাশফোর্ড দারুণ একটি সুযোগ পেয়েছিলেন। তার ডান পায়ের শট ঝাঁপিয়ে পড়ে রক্ষা করেন বেলজিয়াম গোলরক্ষক কুর্তোস। এক মিনিট পরই ফ্যাবিয়ান ডেলফের বাম পায়ের শট মিস হয়ে যায়। ৮১ মিনিটে আবারও সুযোগ পেয়ছিলেন মার্কাস রাশফোর্ড। কিন্তু এবারও তার শট কাজে লাগেনি।

You Might Also Like