গরু রক্ষার নামে হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাস, মুজাফফরনগরে মুসলিম বাড়িতে হামলা

ভারতের উত্তর প্রদেশের মুজাফফরনগরে গরু জবাই করার অভিযোগকে কেন্দ্র করে এক মুসলমানের বাড়িতে হামলা চালিয়েছে একদল উন্মত্ত হিন্দুত্ববাদী জনতা। ওই ঘটনায় সংশ্লিষ্ট এলাকায় তীব্র উত্তেজনা সৃষ্টি হওয়ায় প্রচুর সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

পুলিশ বলছে, গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় মুজাফফরনগরের কান্ধলা গ্রামের জিশান কুরেশির বাড়ির বাইরে ক্ষুব্ধ মানুষজন জড়ো হলে সমস্যার সৃষ্টি হয়। ওই পরিবারের সদস্যরা গরু জবাই করেছে বলে তারা দাবি জানায়।

আজ (রোববার) সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, উত্তেজিত জনতা এ সময় জিশান কুরেশির বাসায় হামলা চালিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। ক্ষুব্ধ জনতা ধেয়ে আসার কথা বুঝতে পেরে ওই মুসলিম পরিবারের সদস্যরা বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়।

পুলিশ বলছে, ওই পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে গো-হত্যার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে এবং এ ব্যাপারে চার জনকে আটক করা হয়েছে। পুলিশ জিশান এবং তার স্ত্রী শাহনাজের পাশাপাশি গ্রামবাসী সাদ্দাম এবং মোটা নামে চার জনের বিরুদ্ধে গো-হত্যা সংক্রান্ত বিভিন্ন ধারায় মামলা দায়ের করেছে। এলাকায় উত্তেজনা থাকায় সংশ্লিষ্ট গ্রামটিতে প্রচুর পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

অন্য এক সূত্রে প্রকাশ, উত্তেজিত জনতা অভিযুক্ত জিশান কুরেশির বাড়ির দরজা এবং প্রাচীর ভেঙে সেখানে ব্যাপক ভাঙচুর করে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে কোনোক্রমে বুঝিয়ে সুঝিয়ে ওই জনতাকে শান্ত করে।

গত বছরে উত্তর প্রদেশের দাদরিতে বাসায় গরুর গোশত রাখা এবং তা খাওয়ার অভিযোগে মুহাম্মদ আখলাক নামে এক বৃদ্ধকে পিটিয়ে হত্যা করে উন্মত্ত জনতা। মুজাফফরপুরের ঘটনায় যদি জিশান সপরিবারে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যেতে সমর্থ না হতেন তাহলে এ ক্ষেত্রে দাদরির ঘটনার পুনরাবৃত্তি হতে পাওয়ার আশঙ্কা ছিল বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন। হামলাকারীরা তার বাড়ির দিকে এগিয়ে আসতেই জিশান তার স্ত্রী শাহনাজ এবং সন্তানকে নিয়ে আগেভাগেই বাড়ির পিছনে জঙ্গলের মধ্যে দিয়ে অন্যত্র পালিয়ে যান।

এদিকে, গো-হত্যার অভিযোগকে কেন্দ্র করে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানোর দাবি করেছেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদ নেতা ডা. চন্দ্রমোহন শর্মা, বিজেপি নেতা ডা. সুধীর সৈনি, শিবসেনা এবং বজরং দলের নেতারা। গো-হত্যাকারীদের কোনোভাবেই ক্ষমা করা উচিত নয় বলেও হিন্দুত্ববাদী ওই নেতারা মন্তব্য করেছেন।

You Might Also Like