খুলনা টেস্টে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩৩২

পাকিস্তানের বিপক্ষে দুই টেস্ট সিরিজের খুলনায় প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১২০ ওভার খেলে সবকটি উইকেট হারিয়ে ৩৩২ রান সংগ্রহ করেছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। বাংলাদেশ মাত্র ৯৬ রানে শেষ সাত উইকেট হারিয়েছে।

আগের দিনে অসমাপ্ত ওভার শেষ করতে দিনের শুরুতেই আক্রমনে এলেন পাকিস্তানের জুলফিকার বাবর। নতুন বলে ওয়াহাব রিয়াজের সঙ্গে বাবরকেই আক্রমণে রাখলেন অধিনায়ক মিসবাহ-উল-হক। কৌশলে কাজ হলো। প্রথম দিনের শেষ ওভারে মুমিনুল হককে ফিরিয়েছিলেন বাবর। আজ দিনের শুরুতেই সাকিব আল হাসানকে ফিরিয়ে পাকিস্তানের আনন্দের উপলক্ষ এনে দিলেন বাবরই। অবশ্য বাবরের বলে ডাউন দ্য উইকেটে এসে খেলার ভাবনাটা সাকিবের মাথায় কেন এল, এ নিয়ে কিন্তু প্রশ্ন উঠতে বাধ্যই। সাকিব ফিরে যাওয়ার পর দলকে স্বস্তির উপলক্ষ এনে দেয় মুশফিকুর রহিম ও সৌম্য সরকারের ষষ্ঠ উইকেট জুটি। এ জুটিতে আসে ৬২ রান। মোহাম্মদ হাফিজের বলে আসাদ শফিকের বলে দারুণ এক ক্যাচে পরিণত হওয়ার আগে অভিষিক্ত সৌম্যের সংগ্রহ ৩৩ রান। এর পর হঠাৎ টালমাটাল বাংলাদেশ। ৫ উইকেটে ৩০৫ থেকে ৮ উইকেটে ৩১২, মাত্র ৭ রানের ব্যবধানে ঝরে গেল ৩টি উইকেট। ইয়াসির শাহর বলে থিতু হওয়া মুশফিক ফিরলেন ৩২ রানে। মুশফিক ফিরে যাওয়া নিঃসন্দেহে বাংলাদেশের জন্য ছিল অনেক বড় আঘাত। এর পর তাইজুল, শুভাগত হোম, রুবেল হোসেন, মোহাম্মদ শহীদরা করতে পারেননি তেমন কিছু। শুভাগত অপরাজিত ছিলেন ১২ রানে। মোহাম্মদ শহীদ ফেরেন ১০ রান করে। তাইজুল আর রুবেলের ব্যাট থেকে আসে যথাক্রমে এক ও দুই রান।

পাকিস্তানের পক্ষে ওয়াহাব রিয়াজ ও ইয়াসির শাহ নিয়েছেন তিনটি করে উইকেট। দুটি করে উইকেট গেছে মোহাম্মদ হাফিজ ও জুলফিকার বাবরের ঝুলিতে।

বাংলাদেশের সেরা ব্যাটসম্যান ছিলেন ওই মুমিনুল হকই। তাঁর ব্যাট থেকে আসে ৮০ রান। ইমরুল কায়েস করেন ৫১। মাহমুদউল্লাহ ফেরেন ৪৯ রানে।

You Might Also Like