খিজির খান হত্যা : দোষ স্বীকার করে তরিকুলের জবানবন্দি

বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (পিডিবি) প্রাক্তন চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মুহম্মদ খিজির খান হত্যা মামলায় আদালতে দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন আসামি তরিকুল ইসলাম ওরফে তারেক।

রোববার দ্বিতীয় দফায় আট দিন রিমান্ড শেষে তাকে আদালতে হাজির করে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করার আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক আজিজুর রহমান। তরিকুলের জবানবন্দি রেকর্ড করেন ঢাকা মহানগর হাকিম হাসিবুল হক।

এ ছাড়া অপর একটি খুনসহ ডাকাতির মামলায় তরিকুল ও অপর আসামি আলেক ব্যাপারীর দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন অতিরিক্ত ঢাকা মহানগর হাকিম লুৎফর রহমান শিশির।

১৯ অক্টোবর আসামি তরিকুল ইসলাম ও আলেক বেপারীকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক আজিজুর রহমান। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম ইউনুস খান পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এরআগে ১৫ অক্টোবর ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ রাশেদ তালুকদার তাকে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত ১৪ অক্টোবর টাঙ্গাইলে ও রাজধানীর মিরপুরে অভিযান চালিয়ে মুহম্মদ খিজির খান হত্যার দুই আসামি তরিকুল ইসলাম ওরফে তারেক ও মো. আলেক বেপারীকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ। এ সময় তাদের হেফাজতে থাকা হত্যাকাণ্ডের সময় লুট হওয়া দু’টি ল্যাপটপ ও দু’টি ক্যামেরা উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা হত্যার সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকার করেছে।

গত ৫ অক্টোবর সন্ধ্যায় ঢাকার মধ্য বাড্ডায় নিজ বাসায় মুহম্মদ খিজির খানকে গলা কেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। মধ্য বাড্ডার বাড়িটির তৃতীয় তলায় পরিবার নিয়ে থাকতেন তিনি। এর দোতলায় রয়েছে ‘রহমতিয়া খানকাহ শরিফ (ঢাকা শাখা)’। খিজির খান এই খানকাহ শরিফের পির ছিলেন।

You Might Also Like