খালেদা জিয়া বন্দি হওয়ায় সুষ্ঠু নির্বাচন বাধাগ্রস্ত হবে : কর্নেল অলি আহমদ

বাংলাদেশের তিন বারের নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার উপর যদি নির্যাতন নেমে আসে তাহলে দেশের সাধারণ মানুষ কিভাবে বাস করছে তা বুঝতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন এলডিপির সভাপতি অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল অলি আহমদ। বিএনপি চেয়ারপারসনকে কারাবন্দি করায় সুষ্ঠু নির্বাচন বাধাগ্রস্থ হবে বলেও মনে করেন তিনি। ১০ ফেব্রুয়ারী শনিবার সকালে রাজধানী ঢাকায় এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) সভাপতি।

খালেদা জিয়াকে কারাবন্দি করায় দেশে সংকট আরও ঘনীভূত হবে জানিয়ে কর্ণেল অলি আহমদ বলেন,‘খালেদা জিয়ার মতো কোনো রাজনীতিবিদ বাংলাদেশে নাই। তাঁর উপর যদি এই রকম নির্যাতন নেমে আসে, তাহলে বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ কিভাবে বসবাস করছে সেটা বুঝতে হবে। আমরা সরকারকে অনুরোধ করব, এই ধরনের কর্মকাণ্ড পরিচালনা করলে দেশে সংকট আরো ঘনীভূত হবে। যেভাবে কাজ করবেন তাঁর ফল ভোগ করতে হবে। সুষ্ঠু নির্বাচন আমরা চাই, অবাধ নির্বাচন আমরা চাই, নিরপেক্ষ নির্বাচন আমরা চাই। সবার অংশগ্রহণের মাধ্যমে আমরা নির্বাচন চাই।’

কোনো ধরণের অর্থ তছরুফ হয় নি দাবি করে অবিলম্বে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি জানান এলডিপির এই নেতা। সংবাদ সম্মেলন থেকে বিএনপির কর্মসূচীর প্রতি সমর্থনের কথাও জানানো হয়।

বিএনপিকে নির্বাচন থেকে দুরে রাখতেই খালেদা জিয়াকে পরিকল্পিতভাবে সাজা দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেন কর্নেল অলি আহমদ। বিএনপির প্রধানকে পরিত্যক্ত নির্জন কারাগারে রাখা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি। বড় বড় দুর্নীতির বিচার না করে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলের জন্যেই মামলার রায় দেওয়া হয়েছে বলে মন্তব্য করেন অবসরপ্রাপ্ত এই কর্ণেল। এ সময় ন্যায় বিচারের জন্য খালেদা জিয়াকে সমর্থন দিতে সাধারণ মানুষের প্রতি আহ্বান জানান এলডিপির সভাপতি।

You Might Also Like